Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট পারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক ট্রাক

মানিকগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০১৮, ১১:২১ এএম

দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ২১টি জেলার সঙ্গে রাজধানীতে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট। তবে সম্প্রতি পদ্মায় প্রচণ্ড স্রোত ও ফেরি সংকটের কারণে প্রতিনিয়ত ভোগান্তি বাড়ছে এ নৌরুটে।
শুক্রবার (২০ জুলাই) সকাল ১০টা পর্যন্ত পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের উভয় ঘাট মিলে ৫ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। উভয় ফেরিঘাট সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পাটুরিয়া ফেরিঘাট শাখা বাণিজ্য বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক মহিউদ্দিন রাসেল জানান, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ছোট বড় মিলে ১৬টি ফেরি রয়েছে। এর মধ্যে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বড় একটি ফেরি মেরামতে রয়েছে। বাকি ১৫টি ফেরি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে।

ভোরের দিকে নৌরুট এলাকায় বৈরী আবহাওয়ার কারণে ফেরি চলাচলে কিছুটা বিঘ্ন ঘটে। এতে করে যানবাহনের সংখ্যা বাড়তে শুরু করে ঘাট এলাকায়। যে কারণে যাত্রীবাহী বাসগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নৌরুট পারাপার করা হয়। এতে করে ঘাট এলাকায় অপেক্ষমাণ পণ্যবাহী ট্রাকের সংখ্যা বাড়তে থাকে। সবশেষ পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় তিন শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক নৌরুট পারের অপেক্ষায় রয়েছে।

দৌলতদিয়া ফেরিঘাট শাখা বাণিজ্য বিভাগের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, নদীতে প্রবল স্রোত থাকার কারণে ফেরি পারাপারে সময় লাগছে বেশি। এছাড়া যানবাহনের তুলনায় ফেরিও কম। আবার যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বড় একটি ফেরি মেরামত কারখানায় রয়েছে। যে কারণে ঘাট এলাকায় যানবাহনের কিছুটা চাপ রয়েছে।

তবে ব্যক্তিগত ছোট গাড়ি, যাত্রীবাহী বাস এবং জরুরি পণ্যবাহী ট্রাকগুলো পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে। যে কারণে সাধারণ পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে নৌরুট পার হতে কিছুটা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। সবশেষ দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় দুই শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক নৌরুট পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে বলেও জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া


আরও
আরও পড়ুন