Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১১ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

শিক্ষিকার কাণ্ড...

নরসিংদী থেকে স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

টেবিলে মাথা রেখে ঘুমিয়ে পরায় নওরীন নামে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীসহ ৭/৮ জন ছাত্রীকে বেধড়ক পিটিয়েছেন স্বপ্না রানী নামের এক স্কুল শিক্ষিকা। অশালীন ভাষায় গালাগাল করেছে ছাত্রী নওরীনের পিতা-মাতাসহ সকল ছাত্রীদের পিতা-মাতা ও আত্মীয় স্বজনকে। গত বুধবার নরসিংদীর আলীজান জেএম একাডেমীতে এই ঘটনাটি ঘটেছে।
জানা গেছে, শিক্ষিকা স্বপ্না রানী একজন বেপরোয়া শিক্ষিকা। সে স্কুলের প্রধান শিক্ষকসহ সকলকেই তুচ্ছ জ্ঞান করে নিজের খেয়াল খুশীমত আচরণ করে। সে স্কুলে সঠিক সময়ে উপস্থিত হয়না। ক্লাশে সঠিকভাবে পাঠদান করেন না। যখন খুশি স্কুলে যায়, আবার প্রধান শিক্ষকের অনুমতি ছাড়াই চলে যায়। গত বুধবার পঞ্চম শ্রেণীর ক্লাসে গিয়ে টেবিলে মাথা রেখে ঘুমিয়ে নাক ডাকতে শুরু করে।
এ অবস্থায় ছাত্রীরা হাসাহাসি শুরু করলে হঠাৎ স্বপ্না রানীর ঘুম ভেঙে যায়। আর এতেই শিক্ষিকা স্বপ্না রেগে অগ্নিশর্মা হয়ে যায়।এক পর্যায়ে সে প্রথমে ছাত্রী নওরীন ও পরে ৭/৮ ছাত্রীকে বেধড়ক মারধর করেন।
এব্যাপারে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প‚লক সাহার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ভারপ্রাপ্ত বলে সে প্রধান শিক্ষককেও মানেনা।



 

Show all comments
  • sizan ২১ জুলাই, ২০১৮, ১০:১৩ এএম says : 0
    What a shame!!! She should be disciplined for her action and school headmaster should put her on leave of absence until the school committee investigate the incident thoroughly. In addition to that she needs to apologies to the students as well as their parents for her action. Mr. Headmaster you cannot run a school or stay in your position if you do not have any guts to take proper action against her. My question is where in the heck she got the power to show her stupid behavior to those kids. She needs to learn code of conduct, interpersonal skills, and teacher-student relationship. I hope in future this kind of incident does not happens in anywhere and upper school board look at this matter seriously. Thank you so much.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিক্ষিকা

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২১ জুলাই, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ