Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

কয়লা সঙ্কটে বন্ধ বড়পুকুরিয়া বিদ্যুৎকেন্দ্র

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) থেকে এম এ জলিল সরকার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

কয়লা সঙ্কটের কারণে গতকাল রাতে বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ হয়েছে। তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী মো. আ.হাকিম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন তাপ বিদ্যুতের ১ নম্বর ইউনিটের ১২৫ মে.ও . হোলিংয়ের কারনে, ১২৫ মে.ওয়াটের ২ নম্বর ইউনিট অনেক আগে থেকেই বন্ধ রয়েছে । সর্বশেষ ২৭৫ মে.ও ক্ষমত্ াসম্পন্ন ৩য় ইউনিটটি কয়লা অভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। তিনি আরও বলেন কোল ব্যাংকারে যে পরিমান কয়লা লোড দেওয়া রয়েছে , তা নিঃশেষ হয়ে যাওয়ায় এই তাপ বিদ্যুত আর চালু রাখা সম্ভব হচ্ছে না।
কেন এমন হলো এ ব্যাপারে খনি কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা জানান ২০০৫ সাল থেকে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি বাণিজ্যিক উৎপাদনে যায়। উৎপাদিত কয়লা কোল স্টক ইয়ার্ডে ডাম্পিং করে রাখা হয়। পরবর্তীতে অগ্নিকান্ড ও সিস্টেম লসে যে পরিমান কয়লা ঘাটতি হয় তার পরিমান ১লাখ ৪০ হাজার মে.টনের মত। তবে ঘাটতি সমন্বয় না করে শুরু থেকেই সঠিক রিপোর্ট পাঠানো হয়নি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে। যার ফলে এ বিপত্তি। তারপরও চলতি বছরের এপ্রিল, মে দুমাস দফায় দফায় শ্রমিক আন্দোলনে কয়লা উৎপাদন দারুন বিঘ ঘটে। গতকাল বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি ও তাপবিদ্যুত কেন্দ্রে ঘুরে চোখে পড়েছে অচলাবস্থা। কর্মকর্তা , কর্মচারীরা আতংকে। তাপ বিদ্যুত বন্ধের কারনে দেখা দিবে মহা লোড সেডিং। এ কারনে আগাম হতাশাগ্রস্থ হয়ে উত্তরের জেলা উপজেলার মানুষ ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিদ্যুৎ

২০ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ