Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে সালিশ বৈঠক থেকে গ্রেফতার ২

প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ১৩ বছরের এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে শনিবার রাতে ৩ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। রাত ১১টার দিকে পুলিশ একটি সালিশ বৈঠক থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার ও দুই ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেÑবদনীভাঙ্গা গ্রামের মহরাজ বেপারীর ছেলে মামুন বেপারী (১৭) ও নেছার শেখের ছেলে মানিক শেখ (১৬)। অপর ধর্ষক সানকিভাঙ্গা গ্রামের ফজলু হাওলাদারের ছেলে বেল্লাল (১৮) পলাতক রয়েছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পুলিশ হেফাজতে গতকাল রোববার বাগেরহাট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। থানার ওসি তদন্ত তারক বিশ্বাস মামলার বরাত দিয়ে বলেন, গত মঙ্গলবার নানাবাড়ি থেকে ফেরার পথে কিশোরীকে মুখ বেঁধে একটি বাগানে নিয়ে গণধর্ষণ করে মামুন, মানিক ও বেল্লাল। তার চিৎকার শুনে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়। বিষয়টি নিয়ে দু’দফা সালিশ বৈঠকে বসেন ইউনিয়ন আ.লীগের সাবেক সভাপতি মো. মোকলেছ হাওলাদার ও সাবেক মেম্বার জামায়াত নেতা মাওলানা শহিদুল ইসলাম। মেয়েটির পিতা বারইখালী গ্রামের দিনমজুর কবির শেখ বলেন, বৈঠকে ধর্ষক মামুন ও মানিককে লাঠিপেটা করা হয় এবং মেয়েটির ক্ষতিপূরণ বাবদ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এই রায় কার্যকরের জন্য গত শনিবার পুনরায় ২ ধর্ষক ও তার অভিভাবকদের নিয়ে বৈঠকে বসেন তারা। এই বৈঠকে ডাকা হয় সংশ্লিষ্ট ইউপির নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. আকরামুজ্জামানকেও। তিনি বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরে ধর্ষকদের আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন