Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ইসলামী কর্মতৎপরতা

বাংলাদেশ ইন্টেলেকচুয়াল মুভমেন্ট (বিআইএম)

| প্রকাশের সময় : ২৭ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বাংলাদেশ ইন্টেলেকচুয়াল মুভমেন্ট (বিআইএম) এর উদ্যোগে পল্টনস্থ ভোজন রেস্টুরেন্ট এ গতকাল সন্ধায় “ বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা : প্রেক্ষিত তুরস্ক ও মালয়েশিয়া” শীর্ষক এক আলোচনাসভা ও ঈদ উত্তর ঈদ পুনর্মিলনী সংগঠনের সভাপতি, বিশিষ্ট লেখক, গবেষক, কলামিস্ট জনাব মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিআইএম এর সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শামছুল হুদা।
অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, বিআইএম এর সিনিয়র সহসভাপতি, ড. মুফতি মুহাম্মদ গোলাম রব্বানী, পিপলস ইউনিভার্সিটির বিভাগীয় প্রধান, ড. হেলাল উদ্দীন, বিশিষ্ট লেখক, গবেষক মুফতি জহির ইবনে মুসলিম, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সংগ্রামী সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, প্রথম আলোর নিয়মিত কলামিস্ট শাইখ মুহাম্মদ উসমান গনী, ইসলামী আইন ও রিসার্চ সেন্টারের অন্যতম কর্ণধার, লেখক, গবেষক মাওলানা শহীদুল ইসলাম, আরবী ভাষা ও সাহিত্য কেন্দ্রের পরিচালক মাওলানা মহিউদ্দীন ফারুকী, বিশিষ্ট অনুবাদক, গবেষক, মাদ্রাসাতুল মানসুর এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মাওলানা মহিউদ্দীন কাসেমী, বিশিষ্ট আলোচক ও লেখক হা. মাওলানা যুবায়ের আহমদ, তরুণ চিন্তক ও লেখক মাওলানা রেজাউল করীম আবরার, ইনসাফ সম্পাদক সাইয়েদ মাহফুজ খন্দকার, বিশিষ্ট সমাজসেবক মুফতি মাওলানা যুবায়ের গনী, বিআইএম রাস্ট্রনীতি বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মোস্তফা মোহাম্মদ জামাল ভুঁইয়া, পাক্ষিক সবার খবর সম্পাদক মাওলানা আব্দুল গাফফার, বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মোঃ তাসলীম, তরুণ চিন্তক মাওলানা ইফতিখার জামিল।
উপস্থিত ছিলেন মাওলানা ইমরানুল বারী সিরাজী, মাওলানা আব্দুল আলীম, মাওলানা আবু বকর সিদ্দীক জাবের, মাওলানা মাহমুদ হাসান সিরাজী, মাওলানা আমীর আলী হাওলাদার, পীরজাদা সৈয়দ মোঃ আহসান, ইলিয়াস আতহারী, মাওলানা নাজমুল ইসলাম কাসেমী, মুহাম্মদ হোসাইন আকন্দ, ডা. মুহাম্মদ ফয়সাল, তরুণ ছাত্রনেতা আল আমীন, মালয়েশিয়া প্রবাসী মাওলানা মনিরুল ইসলাম, হানিফ আল হাদী, মাহমুদুল হক জালীস, মুফতি আব্দুল্লাহ ইদ্রিস, কাজী মাহবুব, মুহাম্মদ সাআদুদ্দীন, হোসাইন আহমদ, মুজিব তাশফীন প্রমুখ।
আলোচনায় সভাপতি মহোদয় দুটি লিখিত বক্তব্য শ্রোতাদেরকে উপহার দেন। মুল্যবান আলোচনায় তিনি বলেন, আমাদেরকে বাংলাদেশের ভবিষ্যত নিয়ে ভাবতে হবে। আগামী প্রজন্মকে কীভাবে ইসলামের সাথে হেফাজত করা যায় তার জন্য চিন্তা করতে হবে। এ ব্যাপারে মালয়েশিয়া এবং তুরস্কের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হবে। তারা যেভাবে আগামীকে প্রজন্মকে রক্ষা করছে, সেভাবে আমাদেরকেও পদক্ষেপ নিতে হবে। প্রয়োজনে এ দুটি দেশে টিম পাঠিয়ে বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জন করে পরবর্তীতে আরো ভালো কিছু উপহার দেওয়ার তিনি আশ্বাস দেন।
মুফতি জহির ইবনে মুসলিম সম্প্রতি মালয়েশিয়া সফর করে এসেছেন, মালয়েশিয়ার মসজিদ ভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থার দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, বাংলাদেশের মসজিদগুলো যেন দিনদিন বিরান হয়ে যাচ্ছে। অথচ মালয়েশিয়ায় মসজিদ ভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলা হয়েছে। মালয়েশিয়া ও তুরস্কে যখন আগামী প্রজন্মকে ইসলামের পথে এগিয়ে যাওয়ার পথ তৈরী করা হচ্ছে, তখন আমার দেশে সেক্যুলারিজমের নামে নতুন প্রজন্মকে অনৈতিকতার দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।
মুফতি তাসলীম বলেন, বাংলাদেশের আলেমকূল শিরোমনি, ইসলামী চিন্তাবিদ অন্যতম রাহবার, আল্লামা শামসুল হক ফরিদপুরী রহ. এর চিন্তা-চেতনাকে ধারণ করে বাংলাদেশে বুদ্ধিবৃত্তিক আন্দোলনে উলামাদের নেতৃত্বদানে এগিয়ে আসতে হবে। বিআইএম জাতির সংকটময় মুহুর্তে বুদ্ধিবৃত্তিক কাজের ক্ষেত্রে যে শুন্যতা ছিল সেটা কাটিয়ে উঠতে বিশেষভূমিকা পালন করবে। মুফতি যুবায়ের গনি তার বক্তব্যে বাংলাদেশের অন্যতম গবেষক, চিন্তক, লেখক মাওলানা আব্দুল মালেক হাফিজুল্লাহ এর একটি ফতোয়াকে কেন্দ্র করে একটি অনলাইন এর ভূমিকার তীব্র নিন্দা জানান।
আলোচনা সভায় মালয়েশিয়া ও তুরস্কের বিভিন্নমুখি পদক্ষেপ, এর ফলাফল এবং বাংলাদেশের সামাজিক ও রাজনৈতিক চিত্রের তুলনামুলক বিশ্লেষণ করা হয়। একটি নতুন বিষয়ে চিন্তার প্রসার ঘটায় শ্রোতামÐলী এটাকে স্বাগত জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর