Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

গণতন্ত্র ফিরে পেতে সরকার পতন আন্দোলনের বিকল্প নেই -নজরুল ইসলাম খান

প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, দেশের হারানো গণতন্ত্র ফিরে পেতে বর্তমান অবৈধ সরকারের পতনের কোনো বিকল্প পথ নেই। গতকাল মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি বলেন, গণতন্ত্রের মুখোশ পরে সরকার একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েমের গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তাতে পথে একমাত্র বাধা বেগম খালেদা জিয়া।
জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিশিষ্ট কলামিস্ট, সাংবাদিক ও উপস্থাপক শফিক রেহমান, মাহমুদুর রহমান এবং শওকত মাহমুদসহ সকল পেশাজীবী নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ মনববন্ধনের আয়োজন করে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ।
নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা একটি হীরক রাজার দেশে বসবাস করছি। এই সরকার হীরক রাজার সরকার। দেশের জনগণ এদেরকে মানে না। এই জনগণই যখন রশি ধরে দিবে টান হীরক রাজার এই সরকার ভেঙ্গে হবে খান খান। আর সেটি শুধু সময়ের ব্যাপার মাত্র।
তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে নির্বাচনের নামে তামাশা চলছে। বিনা ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি রাষ্ট্র পরিচালনা করছে। আর যারা ভোটে নির্বাচিত হচ্ছে তাদেরকে কারাগারে যেতে হচ্ছে। এভাবে দেশ বেশি দিন চলতে পারে না। কারণ এদেশের মানুষের রক্তে আছে ’৭১।
শফিক রেহমানকে গ্রেফতারের তীব্র সমালোচনা করে সাবেক এই রাষ্ট্রদূত বলেন, কি দুর্ভাগ্য আমাদের জীবনের মায়া ত্যাগ করে যে দেশ স্বাধীন করেছিলাম সেই দেশে সারা জীবন যে মানুষটি গণতন্ত্রের পক্ষে কথা বলেছেন সেই শফিক রেহমানকে বর্তমান অবৈধ সরকার যে মিথ্যা অজুহাতে গ্রেফতার করেছে তা সত্যই আমার কাছে অদ্ভূত লেগেছে। শফিক রেহমান সারা জীবন গণতন্ত্রের পক্ষে লেখালেখি করেছেন।
আয়োজক সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব এম আব্দুল্লাহ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাদের গণি চৌধুরী, সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ