Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ক্ষতবিক্ষত কক্সবাজার চট্টগ্রাম মহাসড়ক

টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢল

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার : | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

কয়েকদিনের টানা ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে মারাতœক বিপর্য়স্থ হয়ে পড়েছে কক্সবাজারের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কসহ অভ্যন্তরীণ সড়কের বেহাল দশা। জনদুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ। সরেজমিন দেখা গেছে, কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আজিজনগর পর্যন্ত প্রায় ৮১ কিলোমিটার সড়কের ৫০ কিলোমিটার সড়কে সৃষ্টি হয়েছে ছোট বড় গর্ত। গর্তের সাথে যোগ হয়েছে সড়কের উঁচু-নিচু অংশ। এসব এলাকায় সড়কের মাঝের অংশ পাশের অংশের তুলনায় নিচু থাকায় যানবাহন চলাচলে মারাত্মক সমস্যা হচ্ছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মহাসড়কের ঈদগাঁও থেকে খুটাখালী পর্যন্ত নামে মাত্র সড়কের সংস্কার কাজ শুরু করা হয়েছে। তবে বর্ষা মৌসুমে নতুন করে কাজ করা অধিকাংশ সড়কেরই কার্পেটিং উঠে ছোট-বড় গর্তে ভরে গেছে। যার কারনে মানুষের দুর্ভোগ আরও বেড়েছে।
আন্তঃজেলা মালামাল পরিবহন ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান মালিকরা জানায়, কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম পৌঁছানোর এখন আর নির্দিষ্ট কোন সময় নেই। গত ২ মাস ধরে মহাসড়কের অবস্থা ক্রমান্বয়ে খারাপই হচ্ছে। সড়ক খারাপ হওয়ায় নির্ধারিত সময়ে মালামাল পৌঁছানো যাচ্ছে না। তড়িঘড়ি করে সড়ক মেরামতের বিষয়ে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির নেতারা বলেন, বৃষ্টির মধ্যেই কিছু ইট দিয়ে কোনো রকমে সড়ক মেরামত হচ্ছে। তা ঠিক করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভারী যানবাহনের চাপে আগের চেয়ে খারাপ হয়ে পড়ছে। বৃষ্টিতে কক্সবাজার টেকনাফ সড়কের কয়েক স্থানে সমস্যা হওয়ায় সরাসরি যান চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তি হয়েছে এ পথে চলাচলকারীদের।
এছাড়া কুতুবদিয়া ও মহেশখালীর ক্ষতবিক্ষত প্রধান সড়ক গুলোর করুণ অবস্থা য়েন দেখার কেউ নেই। রামু নাইক্ষংছড়ি সড়কের অবস্থা আরো করুণ। চকরিয়া বদরখালী সড়কসহ প্রায় সড়ক গুলো ক্ষতবিক্ষত।
এ বিষয়ে সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলী রানা প্রিয় বড়ুয়া জানান, অর্থ বছরের শুরুতে খারাপ ও বন্যা কবলিত সড়ক সংস্কারে ২৫ কোটি টাকা চেয়েছিলো সওজ। সে অনুসারে কোনো বরাদ্দই আসেনি। যা বরাদ্দ পাওয়া গেছে সে টাকায় সংস্কার কাজ পরিচালনায় অগ্রাধিকার তালিকা তৈরি করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর