Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ মাঘ ১৪২৭, ০৭ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রেলওয়ের উন্নয়নে এডিবি’র ৩৬ কোটি ডলার ঋণ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বাংলাদেশ রেলওয়ের উন্নয়নে ৩৬ কোটি ডলার বা ২ হাজার ৮৮০ কোটি টাকা দিচ্ছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। এ বিষয়ে গতকাল মঙ্গলবার একটি ঋণ চুক্তি সই হয়েছে। এ চুক্তির আওতায় দেয়া মোট ঋণের মধ্যে ৩৫ কোটি ৪০ লাখ ডলার কিছুটা কঠিন শর্তে এবং ৬০ লাখ ডলার সহজ শর্তে ঋণ দেবে।
রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে চুক্তিতে সই করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব কাজী শফিকুল আযম এবং এডিবি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ।
কাজী শফিকুল আযম বলেন, চলতি অর্থবছরের প্রথম ঋণ চুক্তি হলো এডিবির সঙ্গে। আগামী ২ আগস্ট রূপসা বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য আরও একটি চুক্তি সই হবে। সার্বিকভাবে এডিবি বাংলাদেশের বিশ্বস্ত উন্নয়ন সহযোগী। আশা করছি এ সহায়তা অব্যাহত থাকবে। আমরা ধীর গতির প্রকল্পগুলো পর্যালোচনা করছি। সেখানে কোনো সমস্যা থাকলে তা সমাধানে পদক্ষেপ নেয়ার ফলে প্রকল্প বাস্তবায়নের গতি বেড়েছে।
মনমোহন প্রকাশ বলেন রেলওয়ে এমন একটি পরিবহন যেখানে স্বল্প খরচে মানুষ যাতায়াত করতে পারেন। এ প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৪০টি ব্রড গেজ লেকোমোটিভ ক্রয় করা হবে। এছাড়া ১ হাজারটি বগি ওয়াগন এবং ১২৫টি লাগেজ ভ্যান কেনা হবে। এসব কেনা হলে রেলওয়ের সেবার মান বাড়ার পাশাপাশি নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
চুক্তি সই অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ৫ বছরে গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরে এ পরিশোধ করতে হবে। ঋণের সুদের হার লাইবর ( লন্ডন ইন্টার ব্যাংক অফার্ড রেট) এর সঙ্গে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ (স্প্রেড) ও ম্যাচুরিটি প্রিমিয়াম শূন্য দশমিক ১০ শতাংশ। তাছাড়া, ১১১১ঋণ বিতরণ বাকি থাকলে তার ওপর শূণ্য দশমিক ১৫ শতাংশ কমিটমেন্ট চার্জ দিতে হবে।
প্রকল্পের কার্যক্রম সম্পর্কে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ রেলওয়ের বহরে মালামাল পরিবহণের জন্য ১ হাজারটি বগি ওয়াগন (৪০০টি এমজি ও ৩০০টি বিজি বগি কাভার্ড ওয়াগন এবং ১৮০টি এমজি ও ১২০টি বিজি বগি ওপেন ওয়াগন) সংগ্রহ, বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৭৫টি মিটার গেজ এবং ৫০টি ব্রডগেজ ল্যাগেজ ভ্যান সংগ্রহ, বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৪০টি ব্রডগেজ ডিজেল ইলেট্রিক লোকোমোটিভ সংগ্রহ, নতুন ডিজেল লোকোমোটিভ ওয়ার্কশপ, ডেমু ওয়ার্কসপ ও ঢাকা লোকো শেড নির্মাণ এবং কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখানা আধুনিকায়নের জন্য কারিগরি সহায়তা দেয়া, এন্টারপ্রাইজ রিসোর্সেস প্ল্যানিং সিস্টেম অপারেশন ও মেইন্টেন্যান্স এর জন্য পরামর্শক সেবা দেয়া এবং এয়ার কন্ডিশনের সুবিধাসহ ল্যাগেজ ভ্যান, কাভার্ড ভ্যান কাচাঁমাল, শাকসবজি ইত্যাদি পরিবহনে সক্ষম হবে।
কার্যক্রমগুলো বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ রেলওয়ের পরিচালনা, জ্বালানি দক্ষতা ও সরকারি রাজস্ব আয় বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে। পরামর্শক সেবাসহ পুরাতন ও মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ ব্রডগেজ লোকোমোটিভ, লাগেজ ভ্যান এবং মাল পরিবহণের জন্য ভ্যান ও ওয়াগণ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে স্বল্প ব্যয়ে আধুনিক, নিরাপদ ও উন্নত সেবা দেয়া সম্ভব হবে।
ঋণের আওতায় বাংলাদেশ রেলওয়ের রোলিং স্টক অপারেশন উন্নয়ন প্রকল্প (কারিগরি সহায়তা) শীর্ষক ২টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ের রোলিং স্টক অপারেশন উন্নয়ন প্রকল্প (রোলিং স্টক সংগ্রহ) শীর্ষক ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব) গত ২৬ জুন অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) সভায় অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রেলওয়ে

১৭ জানুয়ারি, ২০২১
১৫ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ