Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

প্রশ্ন : বাড়ীর মুরব্বী মারা গেলে না কি ৪ দিন পর্যন্ত বাড়ীতে চুলা জ্বালানো যায় না? এ সময় অন্য বাড়ী থেকে রান্নাবান্না করে আনতে হয়। এ রীতি কি ইসলামসম্মত?

শাহবাজ আহমেদ
নবী নগর, বি.বাড়ীয়া।

প্রকাশের সময় : ২ আগস্ট, ২০১৮, ১২:২৩ এএম

উত্তর : মৃত ব্যক্তির বাড়ীতে চুলা জ্বালানো বা রান্নাবান্না করা ইসলামে নিষিদ্ধ নয়। যেদিন বাড়ীতে কোনো মুরব্বী বা অন্য কেউ মারা যাবেন, সেদিনই রান্নাবান্না করা যাবে। ইসলামে মৃত ব্যক্তির জন্যে শোক পালনের সময়সীমা তিনদিন। এ তিনদিন তার জন্যে বিশেষ দোয়া, সদকা-খয়রাত, স্মৃতিচারণ এবং নিকটাত্মীয়দের শোকতাপ অত্যন্ত স্বাভাবিক। এ তিনদিন কোনো কার্যক্রম বন্ধ রাখা বা চালু রাখা বাধ্যতামূলক নয়। এ সময় স্বাভাবিক জীবনাযাত্রার কোনো কিছু স্থগিত রাখা বা চালু রাখা উভয়ই অনুমোদিত। অবশ্য বাংলাদেশের গ্রাম ও শহরে একটি নিয়ম চালু আছে যে, মৃত ব্যক্তির বাড়ীতে দু’একবার অন্যান্য বাড়ী থেকে খানা পাক করে উপহারস্বরূপ পাঠানো হয়। এটা ইসলামী ভ্রাতৃত্ববোধ ও সমবেদনারই বহিঃপ্রকাশ মাত্র। এতে দোষের কিছু নেই বরং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের রান্নাবান্নার ঝামেলা থেকে মুক্ত রাখার একটি প্রশংসনীয় মানবিক উদ্যোগ।

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন: আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • Mukit ul Islam ২ আগস্ট, ২০১৮, ৩:২৯ এএম says : 0
    Thanks a lot for the answer. It clarifies a ton of confusion.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ