Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

নেছারাবাদে বাড়ছে চুরি-ডাকাতি

নেছারাবাদ (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

নেছারাবাদে গত কয়েক মাসে উপজেলার বিভিন্ন সরকারি অফিসসহ বাসাবাড়িতে একের পর এক দুর্ধর্ষ চুরি-ডাকাতির পর ফের বেড়েছে চুরি-ডাকাতি। কত কয়েক সপ্তাহে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চুরি-ডাকাতির ঘটনায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অব্যাহত এসব ঘটনায় এলাকার মানুষকে এখন প্রায়ই নির্ঘুম রাত কাটাতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। চলতি সপ্তাহের পাঁচ দিনে উপজেলার স্বরূপকাঠি পৌরসভায় দু’টি দুর্ধর্ষ চুরিসহ একটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গত ২৭ জুলাই গভীর রাতে স্বরূপকাঠি পৌরসভাধীন জগন্নাথকাঠি বাজারের সুপারি পট্টির একটি দোকানে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। ওই দিন রাতে ইলেকট্রিশিয়ান হাফিজের ইলেকট্রিক দোকানের তালা ভেঙে চোরেরা পৌনে দুই লাখ টাকা নিয়ে যায়। ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই দু’দিনের মাথায় ২৯ জুলাই পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে হাওলাদার বাড়ির মাসুম হাওলাদারের বাড়িতে গভীর রাতে চুরির ঘটনা ঘটে। চোরেরা মাঝ রাতে ঘরের তালা ভেঙে নগদ আট হাজার টাকাসহ তিনটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়।
ওই ঘটনার একদিনের মাথায় ৩১ জুলাই উপজেলার ল²ণকাঠি গ্রামের প্রভাষক ঝন্টু দাসের বাড়িতে গভীর রাতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়। এদিন পাঁচ-ছয়জনের সংঘবদ্ধ একদল ডাকাত ওই ঘরে হানা দিয়ে নগদ ২২ হাজার টাকা ও সাত-আট ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় চার লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়। ঝন্টু দাস অভিযোগ করেন, ডাকাতরা ঘরে প্রবেশ করে তার বৃদ্ধা মা মাধুরী দাস (৫৫) ও বোন লিপীকা দাসকে (২৫) প্রথমে বেঁধে মারপিট করে মালামাল লুট করে নেয়। এ সময় গৃহকর্তা ঝন্টু দাস বাড়িতে ছিলেন না। ঘটনার সপ্তাহ খানেক আগে উপজেলার আকলম গ্রামের কাজী বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। গত ৮ জুলাই গভীর রাতে স্বরূপকাঠি পৌরসভার জাকির হোসেন পান্নার বাড়িতে ডাকাতরা হানা দেয়। সবার হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কয়েক লাখ টাকা ও মালামাল লুটে নিয়ে যায়। ঘরের কর্তা জাকির হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ডাকাতরা দলে ১০-১২ জনের মতো ছিল। তাদের মধ্যে ৯ ডাকাত ঘরে প্রবেশ করে আলমারি ভেঙে তিন লাখ ৩৫ হাজার ৩৫০ টাকা এবং কয়েক ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ ঘরে থাকা বিভিন্ন মালামাল নিয়ে যায়। এসব চুরি ডাকাতির ঘটনার বিষয়ে ভুক্তভোগীরা থানায় অভিযোগ দিলেও পুলিশ কোনো সুরাহা করতে পারছে না বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চুরি-ডাকাতি
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ