Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

প্রশ্ন: কোন আযান শোনার পর কেনাবেচাসহ সকল কাজ মাকরূহ হয়ে যায়?
উ: জুমআর ওয়াক্ত হওয়ার পর যে আযান দেওয়া হয়। সে আযানের পর নামাযের প্রস্তুতিমূলক কাজ ব্যতীত অন্য কোনো কাজ করা মাকরূহে তাহরীমি এবং নামাযের জন্য তৈরি হওয়া ওয়াজিব।
প্রশ্ন: গ্রামের লোক, যার ওপর জুমআ ওয়াজিব নয় শুক্রবার দিন যদি জুমআ আদায়ের নিয়তে শহরে আসে এবং অন্য কোনো প্রয়োজনও পূরণ করে তাহলে সি কী জুমআর সোয়াব পাবে?
উ: জুমআ পড়াটাই যদি তার মূল উদ্দেশ্য হয় তাহলে অবশ্যই সোয়াব পাবে।
প্রশ্ন: এক শহরের কয়েকস্থানে জুমআ আদায় সহীহ হবে কি?
উ: ইমাম আবু হানিফার মতে এক শহরে একাধিক জুমআ সহীহ হবে।
প্রশ্ন: জুমআর নামাযে কোন কোন সূরা তিলাওয়াত করা মুস্তাহাব?
উ: সূরা জুমআ, সূরা মুনাফিকুন অথবা সূরা আ’লা ও সূরা গাশিয়াহ। তবে অন্য কোনো সূরা দিয়ে জুমআ পড়ালেও অসুবিধা নেই।
প্রশ্ন: ঈদ কয়টি?
উ: ইসলামে ঈদ দুইটি। ঈদুল ফিতর, যা রমযান মাসের শেষে পহেলা শাওয়াল হয়ে থাকে। আর ঈদুল আযহা হয যিলহজ্জ মাসের দশ তারিখ।
প্রশ্ন: ঈদের নামায কি?
উ: উভয় ঈদের নামাযই ওয়াজিব।
প্রশ্ন: কোনো যানবাহনে চড়ে ঈদের নামাযে যাওয়া ঠিক কি?
উ: হ্যাঁ, যাওয়া যাবে। তবে পায়ে হেঁটে যাওয়াই উত্তম। -মুফতী ওয়ালীয়ুর রহমান খান



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ