Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

শিক্ষাঙ্গনে সুস্থ পরিবেশ চাই

| প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বর্তমানে বিভিন্ন শিক্ষাঙ্গনে একদিকে চলছে রাজনৈতিক ক্ষমতার দোহাই দিয়ে কিছু অসাধু শিক্ষার্থীর অসামাজিক, সহিংস কর্মকান্ড; অন্যদিকে চলছে ধূমপান, মদ্যপানের ধুমধাম আসর। পার্কের মতো অশালীন পরিবেশ লক্ষ্য করা যায় আজকাল অনেক কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে। কেউবা শ্রেণিকক্ষ বা কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষকদের আড়ালে নেশায় ব্যস্ত সময় পার করছে। তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে শিক্ষক-ছাত্রদের মধ্যে হচ্ছে বাকবিতন্ডা ও মারামারি। বেতনের দাবিতে শিক্ষকদের আন্দোলনে পড়াশোনার পরিবেশ বিঘ্নিত। রাজনৈতিক ক্ষমতাকে প্রাধান্য দিয়ে অনেক শিক্ষার্থী রাজনৈতিক দলের স্বার্থ উদ্ধারে অবরোধের নামে ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি পালন করছে। ছাত্রী উত্ত্যক্তের দায়ে শিক্ষকদের ওপর স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে শিক্ষাঙ্গন উত্তপ্ত। দাবি না মানা হলে পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি। এমতাবস্থায় শিক্ষাঙ্গনে সুস্থ পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
তাইফুর রহমান মুন্না
মোরেলগঞ্জ, বাগেরহাট

হাসপাতালের পরিবেশ
দিন দিন রোগীর সংখ্যা হাসপাতালে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তু দুঃখজনক যে, হাসপাতালগুলোর পরিবেশ খুবই খারাপ। অনেক হাসপাতালের আসন সংখ্যা খুবই কম; অথচ প্রতিদিনই বিপুল সংখ্যক রোগী ভর্তি নেওয়া হচ্ছে। রোগীদের যন্ত্রণা এতে আরও বেশি বৃদ্ধি পায়। ব্যবস্থাপনায় ঝামেলা বাড়ছে। প্রয়োজনে অতিরিক্ত ব্যবহারে বাথরুমে যাওয়ার মতো পরিবেশ নেই হাসপাতালগুলোতে। খাবার-দাবারেও অনেক সরকারি হাসপাতাল অপরিচ্ছন্ন পরিবেশের সাক্ষী হয়ে আছে। ডাক্তারের দেখা পাওয়া আজ সোনার হরিণে পরিণত হয়েছে। সঠিক সময়ে তারা রোগীদের সুচিকিৎসা দিচ্ছেন না। অনেক সরকারি হাসপাতালে রোগীদের আর্থিক হয়রানি করা হয়। ঘুষের মাধ্যমে রোগীদের কেবিন বরাদ্দ করা হয়। রোগীদের দেখলেই টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ছক আঁকে। হাসপাতালগুলোতে দুর্নীতি প্রতিরোধ করে সঠিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
তাইফুর রহমান মুন্না
কাছিকাটা, মোরেলগঞ্জ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর