Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

মার্কিন সিদ্ধান্তের পাল্টা আঘাত

একশ দিনে এক হাজার প্রকল্প বাস্তবায়নের ঘোষণা এরদোগানের

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৬ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের পাল্টা সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে আঙ্কারা। তুরস্কের দুই মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ার প্রতিবাদে এবার যুক্তরাষ্ট্রের দুই কর্মকর্তার সম্পদ বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান। প্রেসিডেন্ট এরদোগান টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে বলেন, আজ আমি যুক্তরাষ্ট্রের বিচার ও স্বরাষ্ট্র বিভাগের মন্ত্রীর সম্পদ জব্দ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি। যদি তুরস্কে তাদের কোনো সম্পদ থাকে তাহলে তা জব্দ করা হবে। তবে ওই দুই কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। তিনি বলেন, তুরস্কের জনগণ মার্কিন হুমকিতে কিছুতেই পিছু হটবে না। যুক্তরাষ্ট্র যে অবরোধ দিয়েছে তা অযৌক্তিক এবং খুবই উদ্ধত্যপূর্ণ। মার্কিনীদের এসব আচরণ প্রমাণ করছে যে তারা তুরস্কের জনগণকে চিনতে পারে নি। তুরস্কে গোয়েন্দাবৃত্তি ও সন্ত্রাসে মদদ দেয়ার অভিযোগে মার্কিন ধর্মযাজক অ্যান্ড্রিউ ব্রানসন প্রায় ২০ মাস ধরে আটক রয়েছে। এরদোগানের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান চেষ্টায় মদদ দেয়ার অভিযোগে তাকে আটক করা হয়। স¤প্রতি তাকে কারাগার থেকে মুক্তি দিয়ে গৃহবন্দি রাখা করে রাখা হলেও যুক্তরাষ্ট্র এতে খুশি হতে পারেনি। ব্রানসনকে আটকের প্রতিবাদে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইনমন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। এর প্রতিবাদে মার্কিন কর্মকর্তাদের ওপর পাল্টা নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান। এর আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যিব এরদোগান নতুন করে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেয়ার পর ১০০ দিনের কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন। নতুন মন্ত্রিসভার জন্য তিনি এ ঘোষণা দেন। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি এ খবর প্রকাশ করেছে। ১০০ দিনের পরিকল্পনার মধ্যে মোট ১০০০ প্রকল্প রয়েছে। এর মধ্যে ৪৮টি প্রকল্প দেশটির প্রতিরক্ষাবিষয়ক। এসব প্রকল্প নিয়ে কোনো পুনর্মূল্যায়ন করা হবে না এবং ১০০ দিনের মধ্যে তা বাস্তবায়ন করা হবে। এছাড়া আগামী ২০১৯ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত কৌশলগত পরিকল্পনা প্রণয়নের কাজ করছে এরদোগান সরকার। চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যেই এ পরিকল্পনার কাজ চূড়ান্ত করা হবে। খবরে বলা হয়, শুক্রবার প্রেসিডেন্টশিয়াল কমপ্লেক্সে কর্মপরিকল্পনা ঘোষণার সময় এরদোগান বলেন, আগামী ১০০ দিনে এক হাজার প্রকল্পের কাজ শেষ করা হবে। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ৪০০টি প্রকল্পের নাম ঘোষণা করেন তিনি। বিচারব্যবস্থা বিষয়ে এরদোগান ফেতুল্লাহ গুলেনের সন্ত্রাসী সংগঠনকে উদ্ধৃত করে বলেন, ফেতো আমাদের বিচারব্যবস্থার যে ক্ষতি করেছে তা ঠিক করতে দীর্ঘপথ অতিক্রম করতে হবে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত তুর্কি নেতা ফেতুল্লাহ গুলেন ও তার সংগঠন ফেতো ২০১৬ সালের ১৫ জুলাই দেশটিতে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থান ঘটায়। ওই ঘটনায় ২৫১ জন নিহত ও ২ হাজার ২০০ জন আহত হয়েছিল। এরদোগান আরও বলেছেন, কার্যকর পরিকল্পনা প্রণয়নের সঙ্গে সঙ্গে ‘ইস্তাম্বুল ক্যানাল’ তৈরির পরিবেশগত প্রভাব মূল্যায়ন করা এবং জরিপ কাজ চালানো হবে। এরদোগানের ১০০ দিনের পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে- পররাষ্ট্রনীতি : ১০০ দিনের মধ্যে দূতাবাস সংখ্যা ১৬৩ থেকে বাড়িয়ে ২৪০টি করা এবং ইরাকের মসুল ও বসরায় পুনরায় দূতাবাস স্থাপন করা। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা আশা করব মানবিজে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথ কার্যক্রম প্রভাবিত হবে না। অন্যান্য বিষয়ে আমাদের মধ্যে যতই বিরোধ থাকুক না কেন আমরা মানবিজে একসঙ্গে কাজ করব। যুক্তরাষ্ট্র ও তুর্কির মধ্যে মানবিজ নিয়ে বোঝাপড়ায় উভয়পক্ষ নজর দিচ্ছে পিকেকে সংশ্লিষ্ট ওয়াইপিজে সন্ত্রাসী গ্রæপকে সিরিয়ার শহর থেকে প্রত্যাহার করে সেখানকার পরিবেশ স্থিতিশীল করা। তুরস্ক আশা করছে, আড়াই লাখ সিরিয়ানকে তাদের দেশের নিরাপদ অবস্থানে ফেরত পাঠাবে। উল্লেখ্য, তুরস্ক বিপুলসংখ্যক সিরিয়ানকে তাদের দেশে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় দিয়েছে। আনাদোলু।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ