Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫ পৌষ ১৪২৫, ১১ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

কাঁদলেন টুকটুকি!

স্পোর্টস রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০১ এএম

আসন্ন জাকার্তা-পালেমবাং এশিয়ান গেমসের দল থেকে বাদ পড়ে অঝরে কাঁদলেন জাতীয় মহিলা কাবাডি দলের অন্যতম ডিফেন্ডার ও রেইডার টুকটুকি আক্তার। গতকাল এই প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে অশ্রæসিক্ত নয়নে টুকটুকি বলেন,‘ভাই আমি কি দোষ করেছি জানি না। জাতীয় দলের হয়ে পাঁচ বছরে তিনটি আন্তর্জাতিক গেমসে খেলেছি। দেশকে পদক এনে দিয়েছি। অথচ এবারের এশিয়ান গেমসের দলে আমার জায়গা হয়নি। অজ্ঞাত কারণে আমাকে বাদ দেয়া হলো।’
গত পাঁচ বছর ধরে জাতীয় কাবাডি দলে খেলছেন টুকটুকি। ২০১৪ এশিয়ান গেমসের ব্রোঞ্জপদক জয়ী বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড় তিনি। ২০১৬ গৌহাটি-শিলং সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের রৌপ্যজয়ী দলেও ছিলেন। কিন্তু পাঁচ মাস ক্যাম্পে থাকলেও শেষ পর্যন্ত এশিয়াডের চূড়ান্ত দলে জায়গা হয়নি টুকটুকির। তার পজিশনে নেয়া হয়েছে বিজেএমসির দিশা মনি সরকারকে। যার জাতীয় দলে খেলার পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। এ নিয়ে ক্ষোভের অন্ত নেই টুকটুকির। তিনি বলেন, ‘নিজের সেরাটা দিয়েই দেশের জন্য সব সময় খেলেছি আমি। ক্যাম্পেও ছিলাম নিয়মিত। তারপরও কেন আমাকে বাদ দেয়া হলো বুঝতে পারছি না।’
এ প্রসঙ্গে জাতীয় মহিলা কাবাডি দলের কোচ আবদুল জলিল বলেন, ‘এশিয়ান গেমসের দল নির্বাচন করেছে নির্বাচক কমিটি। এখানে আমার কোন হাত নেই। আমি যতটুকু জানি, দুর্বল পারফরম্যান্সের কারণেই বাদ পড়েছে টুকটুকি।’ তিনি যোগ করেন,‘৪২ জনকে নিয়ে ক্যাম্প শুরু করলেও পারফরমেন্সের ভিত্তিতে পর্যায়ক্রমে আমরা দল ছোট করেছি। প্রথম বাছাইয়ে ৩৫ ও দ্বিতীয় বাছাইয়ে ২৯ জনের দলে টুকটুকি থাকলেও তৃতীয় বাছাইয়ে এসে ১৬ জনের দল থেকে সে বাদ পড়েছে। নির্বাচক কমিটির সুপারিশে সর্বশেষ ১২ জনের চুড়ান্ত দল গঠন হয়েছে।’ বিশ্বস্ত সুত্র মতে, নির্বাচক কমিটির চার সদস্য যথাক্রমে আবদুল মান্নান, মনির হোসেন, আবদুল হক এবং আমির হোসেন পাটোওয়ারী এবার এশিয়াডের দল নির্বাচনে স্বজন-প্রীতির আশ্রয় নিয়েছেন। যে কারণে নতুনের সামনে মার খেয়েছে অভিজ্ঞতা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।