Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সোনালি আঁশে কৃষকের হাসি

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) থেকে মুহাম্মদ আতিকুল্লাহ | প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

গফরগাঁও উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের চলতি মৌসুমে পাটের আবাদ ভাল হয়েছে। তবে বৃষ্টিপাত তুলনামুলক ভাবে কম হওয়ার ফলে এখানকার কৃষকরা পাট জাগ দিতে পারছেনা। কিছু কিছু এলাকার লোকজন নতুন পাট বাজারে তুলতে দেখা গেছে। গত১৫/২০ বছরের তুলনায় এবার দাম অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে। কৃষকরা ধান চাষের পরির্বতে পাট চাষের প্রতি আগ্রহ বেড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। বাংলাদেশের মধ্যে ময়মনসিংহ জেলায় পাট উৎপাদন বেশী হতো। কিন্তুু কালের বির্বতনে পাটের দাম কমে যাওয়ার ফলে এ চাষের প্রতি কৃষকরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছিল। একসময় পাটকে সোনালী আঁশ বলা হতো।
গফরগাঁও উপজেলা কৃষি অফিসার এস এস ফারহানা হোসেন জানান, এবার ৯শত ৫০ হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ করা হয়। গতবারের তুলনায় অনেক বেশী। গত সোমবার গফরগাঁও উপজেলায় প্রধান হাট সালটিয়া বাজারে নতুন ভাল পাট প্রতিমণ ১হাজার ২শত টাকা থেকে ১হাজার ৪শত টাকা দরে বিক্রি হয়। গফরগাঁও বাজারের বিশিষ্ট পাট ব্যবসায়ী মোঃ এমাদুল হক (ইন্তুু) জানান ,দাম আরও বাড়তে পারে বলেই অনেকেই পাট মজুদ করে রেখেছে ।অন্যান্য বারের তুলনায় এবারে পাটের দাম আরও বাড়তে পারে। দিঘীরপাড় গ্রামের মোঃ গিয়াস উদ্দিন নামের একজন কৃষক জানান, বিগত বছরের চেয়ে এবারে পাটের উৎপাদন ভাল হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ