Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮, ০৫ ভাদ্র ১৪২৫, ০৮ যিলহজ ১৪৩৯ হিজরী‌

বিশ্বরেকর্ড গড়ে চেলসিতে কেপা

বিশ্বকাপের সেরা গোলরক্ষক রিয়ালের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৬ এএম

বিশ্বকাপের সেরা গোলরক্ষককে আটকে রাখতে পারল না চেলসি। সব গুঞ্জন সত্যি করে থিবো কোর্তোয়াকে পেয়ে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেটাও নামমাত্র মূল্যে! তিন কোটি ৮৮ লাখ ইউরোকে তো নামমাত্র মূল্যই মনে হওয়ার কথা, যখন শুনবেন কোর্তোয়ার শূন্যস্থান পূরণ করতে আট কোটি ইউরো গুনতে হচ্ছে চেলসিকে। গোলরক্ষক ট্রান্সফার ফির যা বিশ্বরেকর্ড!
বিশ্বকাপের আগে থেকেই কোর্তোয়ার ব্যাপারে আগ্রহী ছিল রিয়াল। দলকে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় রাশিয়ায় সেরা গোলরক্ষক নির্বাচিত হন এই বেলজিয়ান। ফলে কোর্তোয়াকে পেতে রিয়ালের আগ্রহের পালে হাওয়া লাগে আরো জোরেশোরে। কিন্তু চেলসির তাতে সম্মতি ছিল না। আগত্য স্বপ্নের ক্লাবে নাম লেখাতে মরিয়া কোর্তোয়াও দলের অনুশীলন ত্যাগ করেন। বাধ্য হয়ে তাই সেলসিকে ছাড়তে হলো তাকে।
গতকাল নিজেদের অফিসিয়াল ওয়েব পেজে এক বিবৃতিতে কোর্তোয়াকে নিয়ে দুই ক্লাবের মধ্যে মতৈক্যের বিষয়টি নিশ্চিত করে রিয়াল। মেডিকেল পরীক্ষার পর বার্নাবুর দলটির সঙ্গে ছয় বছরের চুক্তিতে কালই সই করেন কোর্তোয়া। নিজের অনুভূতি প্রকাশে তিনি বলেন, ‘আজ আমি স্বপ্নটাকে উপলব্ধি করছি। এটা বিশ্বের সেরা ক্লাব।’
বেলজিয়ামের ক্লাব জেন্ক থেকে ২০১১ সালে কিশোর কোর্তোয়াকে কিনে নেয় চেলসি। ২০১৪ পর্যন্ত অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে ধারে খেলেন ২৬ বছর বয়সী গোলরক্ষক। এরপর থেকে চেলসির এক নম্বর গোলকিপার তিনি। দুটি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপার পাশাপাশি একটি করে এফএ কাপ ও লিগ কাপ জিতেছেন কর্তোয়া। ব্যাপারটা আগেই বুঝতে পেরে কোর্তোয়ার শূন্যস্থান পূরণের জন্যে মরিয়া হয়ে ওঠে চেলসিও। এজন্য কেপা আরিযাবালেগাকে পেতে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলকে গুনতে হয়েছে আট কোটি ইউরো। এত অর্থ দিয়ে এর আগে কেউ কোন গোলরক্ষক কেনেনি। কিছুদিন আগে সাত কোটি ৫০ লক্ষ্য ইউরোয় রোমা থেকে ব্রাজিলের আলিসনকে কিনে আগের রেকর্ডটি গড়েছিল লিভারপুল। তিন সপ্তাহ ব্যবধানে অ্যাথলেটিক বিলবাও থেকে কেপাকে কিনতে সেই রেকর্ড চূরমার করতে হলো চেলসিকে। এত অর্থ দিয়ে চেলসিও এই প্রথম কোন খেলোয়াড় কিনল। গেল মৌসুমে রিয়াল থেকে আলভারো মোরাতাকে কিনতে ৬ কোটি ৬৬ লক্ষ্য ইউরো গুনতে হয়েছিল চেলসিকে। এতদিন এটাই ছিল দলটির ট্রান্সফার ফির রেকর্ড। কেপাকে পেতে তার রিলিজ ক্লজের পুরোটই মেটানো লেগেছে বøুদের। সাত বছরের জন্য ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ২৩ বছর বয়সী এই স্প্যানিশ গোলকিপার। ডেভিড ডি হেয়ার পর স্পেন জাতীয় দলের দ্বিতীয় পছন্দের গোলকিপার কেপা। এখানেই শেষ নয়। চেলসি ও রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যে চুক্তি হয়েছে আরো একটি। আগামী এক বছর চেলসিতে ধারে খেলবেন রিয়ালের ক্রোয়াট মিডফিল্ডার মাতিও কোভাচিস। কোর্তোয়ার মত তিনিও রিয়ালে বিদ্রোহ শুরু করেন দল ত্যাগের জন্য। একাদশে নিয়মিত জায়গা পান না বলে এই পথ বেছে নেন কোভাচিস। অথচ ২৪ বছর বয়সীকে নিয়ে বড় পরিকল্পনা রিয়ালের। যে কারণে তাকে বিক্রি না করে চেলসিতে ধারে পাঠানো হয়েছে। এতে উভয়ের স্বার্থই বজায় থাকছে।
ইন্টার মিলান থেকে নাম লেখানোর পর তিন মৌসুম বার্নাবুর দলের হয়ে খেলেন কোভাচিস। তিন মৌসুমই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতে তার দল। রাশিয়া বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে নিতে অবদান ছিল তারও। চেলসিতে যেতে পেরে খুশি কোভাচিস চেলসি টিভিকে বলেন, ‘আমি এখানে আসতে পেরে সত্যিই খুশি ও উত্তেজিত। এটা অসাধারণ এক অনুভূতি।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর