Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

ঢাকার ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা চান হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০১৮, ২:৫৬ এএম

 রাজধানীর ঝুঁকিপূর্ণ সব ভবনের তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী তিন মাসের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা করে ফায়ার সার্ভিস, রাজউক ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে গুলশান শপিং সেন্টারের ছয় তলা ভবনের গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ওই ভবন ধ্বংস করতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।
এছাড়া রাজধানীর ঝুকিপূর্ণ বিল্ডিং শনাক্ত করে রাজউক, গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এবং ফায়ার সার্ভিসকে নিরাপত্তামূলক পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ কেন দেয়া হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। চার সপ্তাহের মধ্যে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও মোঃ আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রাশনা ইমাম, সঙ্গে ছিলেন জুবায়দা গুলশান আরা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একরামুল হক টুটুল।
ব্যারিস্টার রাশনা ইমাম বলেন, ঢাকা শহরের সব ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা তিন মাসের মধ্যে আদালতে দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফায়ার সার্ভিস, রাজউক ও গণঃপূর্ত মন্ত্রণালয়কে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। আগামী ২২ নভেম্বর এ তালিকা দাখিল করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ফায়ার সার্ভিসের অগ্নি প্রতিরোধ নির্বাপন আইন ২০০৩ এর আওতায় গুলশান শপিং সেন্টারকে ব্যবহার অনুপোযোগী ঘোষণা করা হয়। এ কারণে ওই ভবন ভাঙার নির্দেশনা চেয়ে গত ৯ আগস্ট স্বদেশ নামে একটি এনজিওর নির্বাহী পরিচালক মোঃ হানিফ জনস্বার্থে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাকা

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ