Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বগুড়া অফিস : বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার অভিরামপুর গ্রামের এক মহিলাকে ধর্ষণ করার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদ- এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়ের নির্দেশ, অনাদায়ে আরও এক বছর সশ্রম কারাদ-ের আদেশ দেওয়া হয়েছে। বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-০২ এর বিচারক বেগম মমতাজ পারভীন গত রোববার এই রায় ঘোষণা করেন। যাবজ্জীবন কারাদ-াদেশপ্রাপ্ত আসামি হলেন আবু জাফর ফটু (৩১)। সে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার অভিরামপুর চক কুতুব গ্রামের জালাল উদ্দীন সরকারের ছেলে। আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৬ সালের ২৯ এপ্রিল যাবজ্জীবন কারাদ-াদেশ প্রাপ্ত আসামি আবু জাফর ফটু বিয়ের প্রলোভন দিয়ে একই গ্রামের নুরুল ইসলামের কিশোরী কন্যা জুলেখা খাতুনকে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে জুলেখা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। পরে জুলেখার পরিবার ফটুকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে সে ধর্ষণের ঘটনা অস্বীকার করে বলে জুলেখার পেটের সন্তান তার নয়। পরে এ ব্যাপারে জুলেখা বাদী হয়ে বগুড়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচার প্রার্থী হয়। মামলা চলাকালীন সময়ে জুলেখা একটি কন্যাসন্তান প্রসব করে। বর্তমানে শিশুটি তার মায়ের কাছে লালিত পালিত হচ্ছে। সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত গতকাল জনাকীর্ণ আদালতে এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে হাজির হয়নি। সে কারণে যেদিন আসামি গ্রেফতার হবে সেদিন থেকে তার কারাদ-ের দিন গণনা শুরু হবে বলে আদালত এজলাসে উল্লেখ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় যুবকের যাবজ্জীবন
আরও পড়ুন