Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বার্সা-রিয়ালকে অ্যাটলেটিকোর বার্তা

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৫ এএম

আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে স্প্যানিশ লা লিগার ২০১৮-১৯ মৌসুম। এবারের মৌসুমে কি অপেক্ষা করছে লিগের শীর্ষ দল বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের জন্যে? ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও জিনেদিন জিদানকে হারিয়ে নতুনভাবে শুরু করা রিয়াল কি চ্যালেঞ্জ জানাতে পারবে প্রতিযোগিতায়? কিংবা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা যুগের পর কেমন শুরু হবে বার্সার? নাকি ইউয়েফা সুপার কাপে রিয়ালকে হারিয়ে মৌসুমের বার্তাটা দিয়ে রেখেছে অ্যাটলেটিকো?
ঠিকই পড়েছেন। পরশু রাতে উয়েফা সুপার কাপে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদকে ৪-২ গোলে হারিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এই প্রথম মাদ্রিদ ডার্বি দেখল ইউরোপিয়ান সুপার কাপ। যে প্রথমের সঙ্গে মধুর সাক্ষি হয়ে থাকলো অ্যাটলেটিকোর নাম। পক্ষান্তরে ২০০০ সালের পর এই প্রথম ইউরোপিয়ান আসরের ফাইনালে হারল রিয়াল।
রিয়ালের এই হার কি তাদের জন্য মৌসুমের আগাম বার্তা? গত নয় বছরে বার্নাব্যুর দলের সকল সাফল্যের কারিগর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এখন দলে নেই। নেই দলকে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন্স লিগ উপহার দেয়া কোচ জিদানও। হুলেন লোপেতেগির অধীনে শুরু হচ্ছে বার্নাব্যুর নতুন অধ্যায়। শুরুর শুরুটা কেমন হয়েছে তা তো আগেই বলা হয়েছে। নগর প্রতিদ্ব›দ্বীর কাছে হারের পর লোপেতেগি বলেছেন, এই হারের পরও তার দল পরিকল্পনা বদলাবে না।
সে না বদলাক। কিন্তু এবারের দলবদলের বাজারে রিয়াল যে সুবধা করতে পারেনি তা সবাই স্বীকার করবেন। নেইমার-এমবাপেদের নাম বাতাসেই মিলিয়ে গেছে। আর্জেন্টিনার মাউরো ইকার্দি, বেলজিয়ামের এডেন হ্যাজার্ড, পোল্যান্ডের রবার্ট লেভান্দোভস্কিসহ অনেকের কথাও সংবাদমাধ্যমে এসেছে বহুবার। কিন্তু কাউকে দিয়েই এখন পর্যন্ত রোনালদোর জায়গা পূরণ করতে পারেনি রিয়াল। ওদিকে গণমাধ্যমের খবর, রিয়াল ছেড়ে এসি মিলানে পাড়ি জমাতে চান রাশিয়া বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় লুকা মড্রিচ। সব মিলে কঠিন সময়ই পার করছে রিয়াল। একমাত্র সাফল্য বলতে গেলে, গত বিশ্বকাপের সেরা গোলরক্ষক থিবাত কর্তোয়াকে দলে নেয়া। কিন্তু তা দিয়ে তো আর আক্রমণভাগের খোরাক মিটবে না। গ্যারেথ বেল, করিম বেনজেমা, ইসকোদের উপর তাই এবার প্রত্যাশার চাপ বেড়ে যাবে। সেই চাপ সামলে তারা দলের জন্য কতটুকু সফলতা বয়ে আনতে পারবেন সেটাই এখন দেখার।
রিয়ালের এই দুর্বলতার সুযোগ সহজেই কাজে লাগোতে পারে তাদেরই নগর প্রতিদ্ব›দ্বী অ্যাটলেটিকো। ইতোমধ্যে উয়েফা সুপার কাপে রিয়ালকে হারিয়ে একটা বার্তা দিয়ে রেখেছে ডিয়াগো সিমিওনের দল। এস্তোনিয়ায় অনুষ্ঠেয় সেই ম্যাচে টুর্নামেন্টে দ্রæততম গোলের রেকর্ড গড়েন ডিয়াগো কস্তা (৫০ সেকেন্ড)। পরে বেনজেমা ও সার্জিও রামোসের পেনাল্টি গোলে রিয়াল এগিয়ে গেলেও নির্ধারিত সময়ে দলকে আবার সমতায় ফেরান কস্তা। অতিরিক্ত সময়ে সিমিওনের দলের জয় নিশ্চিত করে সাউল ও কোকের দারুণ দুটি গোল।
এবারের দলবদলের বাজারে সিমিওনের সবচেয়ে বড় সফলতা দলের প্রধান তিন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে পারাটা। বার্সেলোনার লোভনীয় প্রস্তাব ফিরিয়ে তিনি ধরে রেখেছেন আক্রমণের প্রধাণ অস্ত্র অঁতোয়ান গ্রিজম্যানকে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ফিরিয়ে দিয়েছেন রক্ষণের প্রধান সেনানী ডেয়াগো গদিনের প্রস্তাব। গোলরক্ষক জান ওবলাকও আছেন তার দলে। এছাড়া দলে রড্রির মতো তরুণ স্প্যানিশ মিডফিল্ডার, বিশ্ব্কাপজয়ী মিডফিল্ডার থমাস লেমার ও পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড গেলসন মার্টিন্সের অন্তর্ভুক্তি শক্তি আরো বাড়াবে সন্দেহ নেই। ২০১৪ সালের সেই লিগ জয়ের স্মৃতি তাই ফিরিয়ে আনার স্বপ্ন দেখতেই পারেন সিমিওনে।
এদিকে বার্সা তাদের মাঝমাঠের প্রধাণ অস্ত্র ইনিয়েস্তাকে হারালেও সেই জায়গা পূরণে তারা দলে এসেছে চিলির আর্তুরো ভিদাল ব্রাজিলের ম্যালম ও আর্থারকে। আরেক ব্রাজিলিয়ান রাফিনহোও এখন পুরোপুরি সুস্থ্য। আর কুতিনহো-রাকিচিট-বুসকেটসরা তো আছেনই। নতুন অধিনায়ক হিসেবে কাতালানরা বেছে নিয়েছে মেসিকে। আসছে মৌসুমে দলকে ভালো কিছু উপহার দেয়ার প্রতিশ্রæতিও দিয়েছেন ক্লাব কিংবদন্তি।
মেসির এই প্রতিশ্রæতি অবশ্য ইউরোপিয়ান আসরকে ঘিরে। গত তিন মৌসুম যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ঠিক সুবিধা করতে পারছে না দলটি। গেল মৌসুমে তো শেষ আটের প্রথম লেগে বড় জয় পেলেও দ্বিতীয় লেগে রোমার মাঠে বিষ্ময়করভাবে হেরে বাদ পড়ে বার্সা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এই টানা ব্যর্থতা থেকে বের হয়ে আসাই হবে বার্সার এবারের চ্যালেঞ্জ। এজন্য মেসির পর সবচেয়ে বেশি নজর থাকবে ফিলিপ কুতিনহো ও লুইস সুয়ারেজের উপর। উসমান দেম্বেলেও বার্সার সাফল্যের অন্যতম কারিগর হতে পারেন।
শীর্ষ তিন দলের বাইরে লা লিগায় নজর রাখতে হবে গত মৌসুমের শেষদিকে চমক উপহার দেয়া রিয়াল বেটিসের উপর। ভ্যালেন্সিয়া, ভিয়ারিয়াল বা সেভিয়াও পথের কাটা হতে পারে শীর্ষ দলগুলোর। আজ অবশ্য শীর্ষ তিনের কেউই মাঠে নামছে না। আগামীকাল রাতে ন্যু ক্যাম্পে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সার প্রতিপক্ষ আলাভেস। পরের দিন বার্নাব্যুতে রিয়াল খেলবে গেটাফের বিপক্ষে। তারও পরের দিন ভ্যালেন্সিয়ার মাঠে প্রথম লিগ পরীক্ষায় নামবে অ্যাটলেটিকো।
গেল মৌসুম দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকোর চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করে বার্সা (৯৩)। তিনে থেকে লিগ শেষ করা রিয়ালের সংগ্রহ ছিল ৭৬ পয়ন্ট। তাদের চেয়ে তিন পয়েন্ট পিছনে থেকে লিগ শেষ করে ভ্যালেন্সিায়া।

আজ মুখোমুখি
জিরোনা : রিয়াল ভ্যালাদোলিদ
(রাত ১২:১৫টা)
রিয়াল বেটিস : লেভান্তে (রাত ২:১৫টা)



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর