Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

মাদ্রাসা সভাপতি নির্বাচনে পরাজিত হয়ে আ’লীগের তান্ডব

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা : | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

মাগুরার শালিখা উপজেলার জুনারী মহিলা মাদরাসার সভাপতি নির্বাচিত হতে না পেরে ওই মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আশরাফ আলী এবং সহকারী শিক্ষক নাজির হোসেনকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা শহর আলি ও তার সহকর্মীরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভুক্তভোগীরা জানায়, বৃহস্পতিবার শালিখা উপজেলার জুনারি মহিলা মাদরাসায় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হন শালিখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমি মজুমদার। কিন্তু নির্বাচনে দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার সিরাজুদ্দৌজা নবনির্বাচিত সভাপতি হিসেবে শালিখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমি মজুমদারের নাম ঘোষণা করেন। মোট ১০ ভোটের মধ্যে ইউএনও ৬ ও শহর আলী ৪ ভোট পায়। পরাজিত প্রার্থী আড়পাড়া ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা শহর আলী ক্ষুব্ধ হয়ে বিকেলে মাদ্রাসার সুপার ও শিক্ষক প্রতিনিধিকে মারপিট করেন। মাদরাসা সুপার মাওলানা আশরাফ আলীর ছেলে হাদিউজ্জামান জানান, বিকাল ৫টার দিকে তার পিতা সুপারিনটেনডেন্ট মাওলানা আশরাফ আলী অপর সহকারি শিক্ষক নাজির হোসেনকে নিয়ে মটর সাইকেলে করে মাদরাসা থেকে আড়পাড়া সদরে ফিরছিলেন। পথে কাতলির মোড় এলাকায় শহর আলী তার সহযোগীদের নিয়ে তাদেরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শালিখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমি মজুমদার জানান, দুপুরে মাদরাসার নির্বাচন ছিল নির্বাচনে তিনি বিজয়ী হন।
শালিখা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর