Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

চীনা অর্থায়নে প্রকল্প বাতিল করেছে মালয়েশিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০১৮, ৮:২২ এএম | আপডেট : ৯:০৯ এএম, ২২ আগস্ট, ২০১৮

চীনের অর্থায়নে মাল্টিবিলিয়ন ডলারের প্রকল্প বাতিল করল মালয়েশিয়া। এসব প্রকল্প এখন অপ্রয়োজনীয় ও এতে দেশটির পিঠে অসহনীয় ঋণের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হবে বলেও মনে করেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। মঙ্গলবার বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মাহাথির।খবর সিএনবিসি।
মাহাথির মালয়েশিয় সাংবাদিকদের বলেন, তার বিশ^াস যে চীন মালয়েশিয়াকে একটি দেউলিয়া রাষ্ট্র দেখতে চায় না। তিনি বলেন, চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও প্রধানমন্ত্রী লি কিকিয়াং প্রকল্পগুলো বাতিলের কারণ বুঝতে পেরেছেন। আর তা মেনেও নিয়েছেন। তবে এর আগে বিনিয়োগের সপক্ষে যুক্তি দিয়ে চীন দাবি করেছিল, এতে উভয়পক্ষেরই বাস্তবিক লাভ হবে।
দুই হাজার কোটি ডলার ব্যয়ে মালয়েশিয়ার পূর্ব উপকূলীয় রেলপথ ও ২৩০ কোটি ডলার ব্যয়ে দুটি জ্বালানি পাইপলাইন নির্মাণের দুটি প্রকল্প নিয়ে পুনরায় আলোচনা ইতোমধ্যে স্থগিত করেছে মালয়েশিয়া। মাহাথির বলেন, ‘এখানে অনেক বেশি অর্থ খরচ করা হবে যার সামর্থ আমাদের নেই। এছাড়া এই মুহূর্তে মালয়েশিয়ার জন্য এসব প্রকল্পের দরকারও নেই।’
মাহাথির বলেন, প্রয়োজন পড়লে আবারও এসব প্রকল্প চালু করা যেতে পারে। তবে এখন মালয়েশিয়ার প্রধান লক্ষ্য হলো জাতীয় ঋণ কমানো। তিনি বলেন, ‘আমাদের যত ঋণ আছে, সতর্ক না হলে আমরা দেউলিয়া হয়ে যাবো।’ সংবাদ সম্মেলনে নিজের পূর্বসুরী নাজিব রাজাকের ‘বোকামি’কে দোষারোপ করেন মাহাথির। তিনি বলেন, নিজ থেকে এসব প্রকল্প থেকে বের হয়ে আসায় মালয়েশিয়াকে এখনও প্রকৃত জরিমানা দিতে হবে। এছাড়া এসব প্রকল্পের জন্য দেওয়া অর্থ কোথায় গেছে তাও খুঁজে বের করা প্রয়োজন। বেইজিং সফর শুরুর আগেও মাহাথির বলেছিলেন, মালয়েশিয়ার জন্য এসব প্রকল্প দরকার নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ