Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৩ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

কোরবানি নিয়ে হুমকি দেওয়ায় ভারতে বিজেপির আইনপ্রণেতা আটক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০১৮, ১১:২৩ এএম

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির আইনপ্রণেতা রাজা সিংকে আটক করেছে হায়দারাবাদ পুলিশ। মঙ্গলবার শহরের গোসামাল এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে প্রতিরোধমুলক হেফাজতে নেওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। দেশটির বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, গরু কোরবানি বন্ধ করতে যাওয়া ‘গো রক্ষকদের’ আটক করা হলে তাদের মুক্তির দাবিতে স্থানীয় পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচির পরিকল্পনা করছিলেন তিনি। এছাড়া মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহায় গরু কোরবানি হলে সংঘবদ্ধ সহিংসতারও হুমকি দিয়েছিলেন রাজা সিং। ভারতে বুধবার পালিত হচ্ছে এই ধর্মীয় উৎসব।
গ্রেফতার হওয়া বিজেপির আইন প্রণেতা রাজা সিং ভারতের দ্বিতীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ সম্প্রদায় ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা মুসলিমরা। ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী এদিন সামর্থ্যবান মুসলমানরা পশু কোরবানি করবেন। ভারতে কোরবানি দেওয়া পশুর মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ গরু ছাড়াও ছাগল ও ভেড়া থাকে। দেশটির সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা গরুকে পবিত্র জ্ঞান করে থাকে। ২০১৪ সালে বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার ভারতের ক্ষমতায় আসার পর বেশ কয়েকটি রাজ্যে গরু হত্যা ও গরুর মাংস খাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। গরু রক্ষার নামে উগ্রবাদী ধর্মীয় গোষ্ঠীর সহিংসতায় প্রাণ হারিয়েছে অনেক মুসলিম ধর্মাবলম্বী।

গত সপ্তাহে গরু রক্ষা আন্দোলনে আরও বেশি জোর দিতে বিজেপি থেকে পদত্যাগের চিঠি দিয়ে সাড়া ফেলেছিলেন আটক হওয়া তেলেঙ্গানা আইনসভার সদস্য রাজা সিং। বিজেপির রাজ্য সভাপতি কে. লক্ষণের কাছে জমা দেওয়া ওই পদত্যাগপত্র এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করা হয়নি। গত ২০ আগস্ট (সোমবার)সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে রাজা সিং বলেছেন, গ্রেফতার করা হলে আমি জেলের মধ্যেও আমরণ অনশন চালিয়ে যাবো।

বুধবারের ঈদে গরু কোরবানি নিষিদ্ধের দাবিতে কর্মসূচি পালনের পরিকল্পনা করছিলেন রাজা সিং। তিনি অভিযোগ তোলেন গরু রক্ষা করতে যাওয়া স্বেচ্ছাসেবক ‘গো রক্ষকদের’ বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করছে পুলিশ। পুলিশের সমালোচনা করে তিনি বলেন, তারা গরু হত্যা বন্ধ করতে ব্যর্থ হয়েছে।

২০১৭ সালে গরু পাচারের অভিযোগে হায়দারাবাদের আলওয়ারে রাকবির খান নামে একজনকে পিটিয়ে হত্যা করে উগ্র গো রক্ষকরা। ওই ঘটনাকে আলওয়ার হত্যাকাণ্ড অভিহিত করে থাকে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো। ওই ঘটনার পর রাজা সিংহ বলেছিলেন, গরুকে ‘রাষ্ট্র মাতা’ ঘোষণার আগ পর্যন্ত এই ধরণের হত্যাকাণ্ড থামবে না।

মঙ্গলবার ভারতের হায়দারাবাদ পুলিশের একটি দল তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। হায়দারাবাদ পুলিশ কমিশনার অঞ্জনি কুমার বলেছেন, পুলিশ কমিশনারের কার্যালয় ঘেরাওয়ের হুমকি দেওয়া ঘিরে নিরাপত্তা বিঘ্নের আশঙ্কায় তাকে আটক করা হয়েছে।

তিন বছর আগে হায়দারাবাদের মোয়াজ্জেম জাহি মার্কেট এলাকায় দুটি গরু পরিবহনের সময় হামলার ঘটনার পর থেকেই সতর্ক রয়েছে সেখানকার পুলিশ।

প্রসঙ্গত, এবারের ঈদুল আজহায় প্রকাশ্যে কোরবানি ও ড্রেনের মধ্যে রক্ত ফেলা নিষিদ্ধ করেছে দেশটির আরেক রাজ্য উত্তর প্রদেশের রাজ্য সরকার। গত ১৮ আগস্ট (শনিবার ) এক ভিডিও কনফারেন্সে রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছেন বলে মঙ্গলবার খবর প্রকাশ করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ