Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

আহামরি ব্যবসা করছেন না ঈদের সিনেমা

বিনোদন রিপোর্ট: | প্রকাশের সময় : ২৮ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

এবারের ঈদে ৫টি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। শেষ পর্যন্ত মুক্তি পায় তিনটি। বেপরোয়া এবং মাতাল শেষ মুহূর্তে সেন্সর সনদ পেলেও মুক্তি দেয়া থেকে সরে যায়। মুক্তি পেয়েছে ক্যাপ্টেন খান, মনে রেখো ও জান্নাত। তবে হল রিপোর্ট অনুযায়ী ঈদে যেভাবে দর্শক সিনেমা হলে উপস্থিত হন, সেভাবে উপস্থিত হচ্ছেন না। গতানুগতিক সংখ্যার দর্শকই সিনেমা হলে দেখা যাচ্ছে। উপচেপড়া ভিড় খুব একটা দেখা যাচ্ছে না। শাকিব খান, বুবলী, মিশা সওদাগর, সম্রাট অভিনীত ক্যাপ্টেন মুক্তি পেয়েছে ১৭০টি সিনেমা হলে। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। অন্যদিকে মাহি ও কলকাতার নায়ক বনি অভিনীত মনে রেখো ৭০টির মতো হলে প্রদর্শিত হচ্ছে। পরিচালনা করেছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। মাহি অভিনীত আরও একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। নাম জান্নাত। নাম ভ‚মিকায় অভিনয় করেছেন মাহি। তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন সাইমন সাদিক। ২২টির মতো প্রেক্ষাগৃহে চলছে সিনেমাটি। ঈদের ছবি কেমন ব্যবসা করছে, এ প্রসঙ্গে হল মালিক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ঈদের সিনেমা যেভাবে দর্শকের দেখার কথা সেভাবে দেখছেন না। দর্শক উপস্থিতি আশানুরূপ নয়। গতানুগতিক চলছে, খুব একটা আহামরি নয়। শাকিবের সিনেমা কিছুটা এগিয়ে আছে। তবে সেটা খুব বেশি না। এর আগে আমরা দেখেছি, 'ভাইজান এলো রে' দেখার জন্য মানুষের উপচেপড়া ভিড়, ঈদের সিনেমাতে তেমনটা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এমনটাও হতে পারে ঈদের ছুটিতে মানুষ ঢাকার বাইরে আছে। সে কারণে দর্শক কিছুটা কম হতে পারে। ধীরে ধীরে হয়তো বাড়বে। জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন বলেন, এবারের ঈদে জাজ প্রযোজিত কোনও সিনেমা মুক্তি দেয়া হয়নি। তবে আমি জেনেছি জাজের ২২ টি সিনেমা হলে ক্যাপ্টেন খান প্রদর্শিত হচ্ছে। সিনেমা সংশ্লিষ্টদের অভিমত সবশেষ তথ্য অনুযায়ী ক্যাপ্টেন খান এবং মনে রেখো সিনেমার মধ্যে প্রতিযোগিতা চলছে। মূলত শাকিব-মাহির একটা লড়াই চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ