Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

হিলারি ক্লিনটন সম্পর্কে পাঁচটি অজানা তথ্য

প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক

যুক্তরারেষ্ট্রর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়নপ্রার্থী হিলারি ক্লিনটন নিউ ইয়র্ক প্রাইমারিতে সহজেই বিজয়ী হয়েছেন। মার্কিন রাজনীতিতে মিসেস ক্লিনটন ফার্স্ট লেডি থেকে সিনেটর থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নানা ধরনের দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু তিনি যে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড জিতেছিলেন সে খবরটি অনেকেই জানেন না। এখানে হিলারি ক্লিনটন সম্পর্কে পাঁচটি অজানা তথ্য:
তার কোডনেম ছিল ‘এভারগ্রিন’। হোয়াইট হাউজের দিনগুলিতে মার্কিন সিক্রেট সার্ভিস দেহরক্ষীরা মিসেস ক্লিনটনের জন্য যে কোডনেম নির্ধারণ করেছিল তার নাম ছিল ‘এভারগ্রিন’ বা ‘চির-সবুজ’।
প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের কোডনেম ছিল ‘ঈগল’।
গ্র্যামি পুরস্কার বিজয়ী হিলারি
১৯৯৭ সালে হিলারি ক্লিনটন আমেরিকার সেরা সঙ্গীত পুরস্কার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হন। এটা ছিল নন-মিউজিক্যাল ক্যাটাগরিতে। ‘ইট টেকস আ ভিলেজ’ শিরোনামে হিলারি ক্লিনটনের লেখা বইটির অডিও সংস্করণ এই ক্যাটাগরিতে বিজয়ী হয়। বইয়ের মূল বিষয় ছিল শিশুদের বিকাশ এবং শিক্ষা। মিসেস ক্লিনটন বেশ কয়েকটি বই লিখেছেন।
রাজনৈতিক পদের লড়াইয়ে প্রথম ফার্স্ট লেডি
হিলারি ক্লিনটন ২০০০ সালে নিউ ইয়র্কের সিনেটর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং বিজয়ী হন।
২০০৬ সালে একই পদের নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে পুনঃনির্বাচিত হন।
রডহ্যাম, ক্লিনটন, নাকি রডহ্যাম ক্লিনটন?
হিলারি রডহ্যাম ১৯৭৫ সালের অক্টোবর মাসে যখন বিল ক্লিনটনকে বিয়ে করেন, তখন পশ্চিমা দেশের প্রথামত তিনি স্বামীর পদবী গ্রহণ করেননি। তবে কিছুদিন পর বিল ক্লিনটন যখন রাজনৈতিক পদ গ্রহণ করেন তখন মিসেস ক্লিনটনের নাম হয় হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন। তবে গত বছর নির্বাচনী প্রচারের ফাঁকে ওয়াশিংটন পোস্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, হিলারি ক্লিনটন নামেই তিনি পরিচিত হতে চান।
নিউ অর্লিয়েন্সে ২০১৪ সালে ন্যাশনাল অটোমোবিল ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের এক সম্মেলনে হিলারি ক্লিনটন জানান, ১৯৯৬ সালের পর থেকে তিনি গাড়ি চালাননি। মূলত তার জীবনযাপনের ধারায় তাকে আর কখনোই নিজের হাতে গাড়ি চালাতে হয়নি। তার জন্য সবসময়ই ড্রাইভার ছিল। আর এ জন্য তার মনে খুবই দু:খ। সূত্র : বিবিসি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ