Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ডান-বাম সংঘর্ষে উত্তাল জার্মানি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

ছুরিকাঘাতে এক জার্মান খুনের ঘটনায় এক ইরাকি ও সিরীয় গ্রেপ্তার হওয়ার পর জার্মানির কেমনিটস্ শহরে অভিবাসন বিরোধী কট্টর ডানপন্থি প্রতিবাদকারীদের সঙ্গে বামপন্থিদের সংঘর্ষ হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সোমবারের এ ঘটনার সময় দু’পক্ষের লোকজনই তাদের ওপর পটকা ছুড়ে মারে বলে অভিযোগ পুলিশের। অভিবাসীদের পক্ষে ও বিপক্ষে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসার পর সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন রাষ্ট্রীয় ও স্থানীয় কর্মকর্তারা। জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কলের মুখপাত্র হুঁশিয়ার করে বলেছেন, “জার্মানি বিচারবহির্ভূত শাস্তি মেনে নিবে না।” ২০১৫ সালে মার্কেল সরকার প্রায় ১০ লাখ আশ্রয়প্রার্থীকে জার্মানিতে প্রবেশের অনুমিত দেওয়ার পর দেশটির সমাজে তৈরি হতে থাকা বিভেদ, এই অস্থিরতায় প্রতিফলিত হয়েছে বলে মন্তব্য রয়টার্সের। রোববার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ৩৫ বছর বয়সী এক জার্মান ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করার ঘটনার প্রতিবেদন ছড়িয়ে পড়ার পর তাৎক্ষণিক বিক্ষোভের সময় বিদেশিদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছিল। সোমবার সন্ধ্যায় বিদেশিদের ওপর হামলার প্রতিবাদে কেমনিটসে কাল মার্ক্সের বিশাল মূর্তির কাছে হাজারেরও বেশি বামপন্থি প্রতিবাদকারী জড়ো হয়। অপর এক খবরে বলা হয়, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা এবং স্বাধীন বিচারব্যবস্থার ওপর জোর দিয়েছেন। জার্মানির পাবলিক ব্রডকাস্টার এআরডিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বাধীনতা নিশ্চিত করা না গেলে গণতন্ত্রকেও রক্ষা করা যাবে না’। স¤প্রতি বেশ কিছু রাজনীতিবিদ জার্মানির বিচারকদের সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। বিশেষ করে ওসামা বিন লাদেনের সাবেক দেহরক্ষী সামি এ-কে অবৈধভাবে তিউনিশিয়ায় ফেরত পাঠানোর বিরুদ্ধে রায় দেয়ার পর তারা এর বিরোধিতা করেন। নর্থ রাইন-ভেস্টফালিয়া রাজ্যের উচ্চতর প্রশাসনিক আদালত সামিকে জার্মানিতে ফেরত আনার আদেশ দেয় এবং যারা তাকে তিউনিশিয়ায় পাঠানোর সিদ্ধান্তে অনুমোদন দিয়েছেন, তাদের জরিমানারও নির্দেশ দেয়। এএফপি, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • রিয়াজ ২৯ আগস্ট, ২০১৮, ৫:৩৩ এএম says : 1
    এই ধরনের সংঘর্ষ বন্ধ হওয়া দরকার
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ