Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বন্ধ হয়নি

মন্ত্রী বললেন দশ রিক্রুটিং এজেন্সিকে শোকজ করা হবে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০২ এএম

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগে অনৈতিক ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগে দশ রিক্রুটিং এজেন্সিকে শোকজ করা হবে। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গতকাল মঙ্গলবার তার দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী সচিব ড. নমিতা হালদার, অতিরিক্ত সচিব আমিনুল ইসলাম ও বিএমইটি’র মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা।
নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, দশ এজেন্সিকে আমরা নিয়ন্ত্রণ করি নাই। মালয়েশিয়ার সরকার ১০ এজেন্সিকে কর্মী প্রেরণের অনুমতি দিয়েছে ; আমরা দেইনি। আমাদের কাছে সবাই সমান। কেউ ডিমান্ড (চাহিদাপত্র) নিয়ে আসুক, আমরা নিয়োগানুমতি দিতে পারবো। তিনি বলেন, ১০ জনের বিরুদ্ধে আমি সব সময় ছিলাম। এখনো আছি। আমি কোনো সিন্ডিকেশনে বিশ্বাস করি না। দশ এজেন্সির বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হবে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, আমরা এখনই তাদের বিরুদ্ধে শোকজ করব। তাদের কাছে ব্যাখ্যা চাইব।
মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বন্ধের বিষয়ে জানতে চাইলে নুরুল ইসলাম বলেন, শ্রমবাজার বন্ধের খবরটা সঠিক নয়। শ্রমবাজার বন্ধের বিষয়ে আমরা কোনো চিঠি পাইনি। যে চিঠির কথা বলা হচ্ছে তা সিনারফ্ল্যাক্সকে দেয়া হয়েছে। মালয়েশিয়ার পক্ষ থেকে চিঠি পেলে যোগাযোগ করব। এ বিষয়ে জানতে কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশনকে গতকাল মালয়েশিয়ার সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ১ সেপ্টেম্বর থেকে জিটুজি প্লাস পদ্ধতিতে নিয়োগ বন্ধ হলেও যে সব কর্মীর সত্যায়নসহ নিয়োগের প্রাথমিক প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে তারা মালয়েশিয়া যেতে পারবেন। এ ধরনের কর্মীর সংখ্যা প্রায় ৩০ হাজার। প্রবাসী মন্ত্রী বলেন, মালয়েশিয়ার লোকের দরকার। লোক নিয়োগের ক্ষেত্রে তারা পদ্ধতিগত পরিবর্তন করতে পারেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ