Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

মিয়ানমারের ভূমিকার নিন্দা জানালেন জাতিসংঘ মহাসচিব

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০১৮, ১১:০৮ এএম

মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর চালানো নিপীড়ন ও গণহত্যার বিষয়ে নিন্দা জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে একটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্তে মিয়ানমারের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ প্রমাণিত হবার একদিন পর স্থানীয় সময় মঙ্গলবার(২৮ আগস্ট) নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে তিনি এ মন্তব্য করেন। খবর সিএনএন।

গত সোমবার (২৭ আগস্ট) প্রকাশিত ঐ প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচি দেশটির সেনা সদস্যদের পরিকল্পিত গণহত্যা থামাতে ব্যর্থ হয়েছেন। মিয়ানমারের রাখাইন ও অন্যান্য অঞ্চলে গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দেশটির সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের অবশ্যই বিচারের আওতায় আনা হবে।

গুতেরেস বলেন, আমার বিশ্বাস প্রতিবেদনে গণহত্যা বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত ও সুপারিশগুলো জাতিসংঘের সকল সদস্য গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করবে। আন্তর্জাতিক নিয়মের প্রতি মিয়ানমারের বাধ্যবাধকতা আনতে, বিশ্বাসযোগ্য, স্বচ্ছ, পক্ষপাতহীন ও স্বাধীনভাবে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।

গুতেরেস বিদ্যমান রোহিঙ্গা পরিস্থিতিকে ‘বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ মানবাধিকার বিপর্যয়’ বলে উল্লেখ করেন। জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন দূত নিকি হ্যালি এসময় গুতেরেসের সাথে সহমত জানিয়ে বলেন, সহিংসতার জন্য দায়ীদের অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন করতে হবে।

তবে জাতিসংঘে মিয়ানমারের প্রতিনিধি হাউ ডু সান প্রকাশিত ঐ প্রতিবেদন সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, সেনা অভিযান সম্পর্কে মিয়ানমার সরকার অবগত আছে। যদি মানবাধিকার লঙ্ঘনের কোন প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকার শান্তি প্রতিষ্ঠায় জনগণের সাথে কাজ করে যাচ্ছে বলেও তিনি জানান।

নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য চীন এর প্রতিনিধি উও হাইতাউ পরিস্থিতি বিবেচনা করে আরও ধৈর্য সহকারে এবং ধাপে ধাপে অগ্রসর হবার জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, কষ্টসাধ্য হলেও মিয়ানমার বিভিন্ন বাধা মোকাবেলায় যতটুকু অগ্রসর হয়েছে তা প্রশংসাযোগ্য। তাদের ওপর চাপ প্রয়োগ না করে সাহায্য করা উচিত।

বৈঠকে উপস্থিত হলিউড অভিনেত্রী ও জাতিসংঘের শুভেচ্ছা দূত ক্যাট ব্ল্যানচেট কিছুদিন আগে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন, যা আমি শুনেছি ও দেখেছি তা হৃদয়বিদারক। এখানে সহজ কোন সমাধান নেই। বিকল্পও নেই। আমরা রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আগেও ব্যর্থ হয়েছি। এবারও ব্যর্থ হতে পারিনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতিসংঘ মহাসচিব


আরও
আরও পড়ুন