Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ৩০ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

মাতৃদুগ্ধ কর্নার থাকা প্রয়োজন
প্রায়ই এমন সমস্যা দেখতে হয়। শিশু খুব করুণ সুরে কাঁদছে মায়ের দুধ খাবে বলে। মা খুব ইতস্তত বোধ করছেন, বিশেষ করে জনসমক্ষে। এই সমস্যার কারণে মা ও বাচ্চা উভয়েরই মনস্তাত্তি¡ক ও শারীরিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। কোনো কোনো সময় এমনও দেখা যায়, কোনোভাবেই মা বাচ্চাকে রাস্তাঘাটে দুধ দিচ্ছেন না। এই সমস্যাগুলো থেকে এখন বের হয়ে আসা খুব প্রয়োজন। একটু আন্তরিকতা ও দূরদৃষ্টি দিলে কাজটি খুব সহজও হয়ে যেতে পারে। ঢাকাতে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালেই প্রথম দেখলাম, তারা নিজ উদ্যোগে মাতৃদুগ্ধ কর্নার রেখেছেন। মনে মনে খুব ভালো লেগেছিল এই ভেবে যে, এ দেশেও কথা শোনার বা দূরদৃষ্টিসম্পন্ন মানুষ রয়েছেন। চলছে মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ। বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশন, হাসপাতাল, ক্লিনিক, বাজার, সুপারশপ ও দূরপাল্লার পরিবহনে মাতৃদুগ্ধ কর্নার স্থাপন হতে পারে একটি বড় কাজ। ফ্লাইওভারের নিচে যাত্রী ছাউনি হিসেবে ব্যবহার করে মানুষ। এখানেও একটি করে মাতৃদুগ্ধ কর্নার স্থাপন করা যেতে পারে। এতে করে ফ্লাইওভারের নিচের জায়গাটার যেমন সুষম ব্যবহার হবে, তেমনি সমস্যার সাময়িক সমাধান হবে।
সাঈদ চৌধুরী,
শ্রীপুর, গাজীপুর



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ