Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

‘মৃত্যুকূপে’ মেসি-সালাহ-নেইমাররা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আসরে গ্রুপ পর্বে কঠিন প্রতিপক্ষ পেয়েছে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ও মোহাম্মদ সালাহ’র লিভারপুল। নেইমারের পিএসজিকেও গ্রুপ পর্বে দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। তবে সহজ গ্রুপে পড়েছে টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। পরশু রাতে ফ্রান্সের মোনাকোয় ২০১৮-১৯ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ড্র অনুষ্ঠিত হয়।
গ্রুপ পর্ব নিশ্চিত হওয়ার পরেই হুঙ্কার ছেড়েছেন লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গুন ক্লপ। সেটা হয়ত প্রতিপক্ষ কঠিন বলেই, ‘এটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। তবে বাকি দলগুলোর জন্য আমাদের মুখোমুখি হওয়া আরো বড় চ্যালেঞ্জ।’ মাঠের লড়াই শুরু হওয়ার আগে জার্মান কোচের এই হুমকির কারণ যে কঠিন প্রতিপক্ষ তা ‘সি’ গ্রুপের দিকে তাকালেই বোঝা যায়। যেখানে সালাহ-ফিরমিনহোদের প্রতিপক্ষ নেইমারের পিএসজি, ইতালির দল নাপোলি ও সার্বিয়ার দল রেড স্টার বেলগ্রেড।
বেলগ্রেডকে সহজ মনে হলেও তারাই গ্রুপের ডার্ক হর্স। দলটিকে অচেনা ঠেকলেও যুগো¯েøাভিয়া থাকতে এই দলটি ইউরোপের অন্যতম সেরা ক্লাবের মর্যাদা পেয়েছিল। ১৯৯১ সালে জিতেছিল ইউরোপ সেরার মুকুট। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সংস্করণ চালু হওয়ার পর এবারই প্রথম সুযোগ পেয়েছে দলটি। এই গ্রুপেই আবার নেইমারের পিএসজি। নতুনভাবে শক্তির জানান দেয়া নাপোলি আছে এই গ্রুপে।
গতবার কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে ছিটকে পড়া বার্সেলোনা পড়েছে ‘বি’ গ্রুপে। তাদের গ্রæপ সঙ্গী টটেনহ্যাম হটস্পার গত মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তৃতীয় সেরা দল। আরেক ক্লাব ইন্টার মিলানকে নিয়ে আলাদাভাবে বলার কিছু নেই। এখন কিছুটা ঝিমিয়ে পড়লেও ইউরোপের একসময়ের প্রতাপশালী দল তারা। নতুন মৌসুম তারা শুরু করেছে নতুন উদ্যোম নিয়ে। গেল ইতালিয়ান লিগ সেরি আয় চতুর্থ সেরা দল তারা। গ্রুপের অপর দল নেদারল্যান্ডসের আইন্দহোভেন। মেসি-সুয়ারেজদের তাই এবার গ্রুপ পর্ব থেকেই কঠিন প্রতিরোধের মুখে পড়তে হবে। যে কোন গ্রুপে দুটি শক্ত দল পড়া মানেই সেটা ‘গ্রুপ অব ডেথ’। ‘বি’ ও ‘সি’ গ্রুপে শক্ত দল তিনটি করে। গ্রুপ দুটিকে তাই মৃত্যুকূপ না বলে উপায় কী।
গত পাঁচ বছরে চারবারের চ্যাম্পিয়ন্স রিয়াল মাদ্রিদ আছে ‘জি’ গ্রুপে। যেখানে তাদের সঙ্গী গতবারের সেমি-ফাইনালিস্ট ইতালির রোমা, রাশিয়ার সিএসকেএ মস্কো ও চেক রিপাবলিকের ভিক্তোরিয়া প্লজেন। তবে গত চার লিগ জয়ের কারিগর রোনালদো এখন আর রিয়ালের নয়। এই বিষয়টাই ক্লাবটির জন্য বড় দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে। সেই তুলনায় কঠিন গ্রুপে পড়েছে লা লিগায় গত আসরের রানার্সআপ ও ইউরোপা লিগজয়ী অ্যাটলেতিকো মাদ্রিদ। ‘এ’ গ্রুপে তাদের তিন প্রতিপক্ষ জার্মানির বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, ফ্রান্সের মোনাকো ও বেলজিয়ামের ক্লাব ব্রুজ।
রোনালদো-পল পগবাদের গ্রুপকেও একেবারে সহজ বলা যাবে না। ‘এইচ’ গ্রæপ সুযোগ করে দিয়েছে রোনালদোকে সাবেক ক্লাবের মুখোমুখি হওয়ার। জুভেন্টাস ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়াও এই গ্রুপে আছে ছয়বারের লা লিগা চ্যাম্পিয়ন ভ্যালেন্সিয়া ও সুইজারল্যান্ডের অন্যতম সফল ক্লাব ইয়াং বয়েজ। আবার এটাও ঠিক জুভেন্টাসের বর্তমান শক্তির সঙ্গে বাকি তিন দলের তুলনাই হয় না।
পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের খুব বেশি সমস্যায় পড়ার কথা নয়। ‘ই’ গ্রুপে জার্মান জায়ান্টদের সঙ্গী বেনফিকা, ডাচ ক্লাব আয়াক্স ও গ্রিসের এইকে অ্যাথেন্স। গতবারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিও পড়েছে সহজ গ্রুপে। ‘এফ’ গ্রুপে পেপ গার্দিওলার দলের সঙ্গী ইউক্রেনের শাখতার দোনেৎস্ক, ফ্রান্সের অলিম্পিক লিওঁ ও জার্মানির হফেনহাইম।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এবারের আসর শুরু হবে ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আট গ্রুপ
গ্রুপ দল
‘এ’ অ্যাটলেতিকো মাদ্রিদ, বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, মোনাকো, ক্লাব ব্রæজ
‘বি’ বার্সেলোনা, টটেনহ্যাম হটস্পার, আইন্দহোভেন, ইন্টার মিলান
‘সি’ পিএসজি, নাপোলি, লিভারপুল, রেড স্টার বেলগ্রেড
‘ডি’ লোকোমোতিভ মস্কো, পোর্তো, শালকে, গালাতাসারাই
‘ই’ বায়ার্ন মিউনিখ, বেনফিকা, আয়াক্স, এইকে অ্যাথেন্স
‘এফ’ ম্যান সিটি, শাখতার দোনেৎস্ক, অলিম্পিক লিওঁ, হফেনহাইম
‘জি’ রিয়াল মাদ্রিদ, রোমা, সিএসকেএ মস্কো, ভিক্তোরিয়া প্লজেন
‘এইচ’ জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ভালেন্সিয়া, ইয়াং বয়েজ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন