Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি সাহায্য সংস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য বন্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৭:৩৫ পিএম
জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি সাহায্য সংস্থায় সব ধরনের অর্থ সাহায্য বন্ধের ঘোষনা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আজ যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি সাহায্য সংস্থাটিকে (ইউনাইটেড নেশনস রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্কস এজেন্সি আনরাওয়া) ’সংশোধনের অযোগ্য ত্রæটিপূর্ণ’ হিসেবে আখ্যায়িত করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে। খবর বিবিসি।
স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র হিদার নাওয়ার্ট জানান, তারা বিষয়টি সাবধানতার সাথে পর্যালোচনা করেছেন এবং ’আনরাওয়া’-কে আর কোন ধরনের সাহায্য থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপকে তার জনগনের উপর ’হামলা’ হিসেবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাতকারে মাহমুদ আব্বাসের মুখপাত্র নাবিল আবু রুদেইনা এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ” সমস্যা সমাধানের জন্য এটি কোন পদক্ষেপ হতে পারে না এবং এ অঞ্চলে যুক্তরাষ্টের প্রভাবহীন হয়ে পড়ার প্রবনতা এতে পরিবর্তন হবে না।” তিনি আরও মন্তব্য করেন, ”এ সিদ্ধান্ত জাতিসংঘ চেতনার পরিপন্থী।”
’আনরাওয়া’-র এক মুখপাত্র ক্রিস গানেস ’টুইট’ বার্তার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের নেয়া সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ”আনরাওয়া এর বিদ্যালয়, স্বাস্থ্য সেবা ও সংকটকালীন সাহয্য সেবা পদক্ষেপ গুলোকে ’সংশোধনের অযোগ্য ত্রæটিপূর্ণ’ বলে নিন্দা করার বিরুদ্ধে আমরা তীব্্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।”
এদিকে, জার্মানি ’আনরাওয়া’-য় অর্থ সাহায্যের পরিমাণ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র অর্থ সাহায্য বন্ধ করে দেয়ায় ফিলিস্তিনের ক্রমবর্ধমান সমস্যা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে আশংকা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রী হেইকো মাস। খবর ডয়েটশে ভেলে (ডি ডবিøউ)। 
চলতি বছরে এ পর্যন্ত জার্মানি জাতিসংঘের ত্রাণ ও সাহায্য সংস্থায় (ইউনাইটেড নেশনস রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্কস এজেন্সিÑআনরাওয়া) ৮১ মিলিয়ন ইউরো (৯৪.৫ মিলিয়ন ডলার) দিয়েছে। আরও কি পরিমাণ অর্থ সাহায্য জার্মানি করবে তা নির্দিষ্ট করে না বললেও তা সংস্থাটির বর্তমান ঘাটতি ২১৭ মিলিয়ন ডলার পূরণে যথেষ্ট হবে না জানিয়ে হেইকো মাস বলেন, ”জাতিসংঘের সাহায্য সংস্থাটি এ অঞ্চলে স্থিতিশীলতা রক্ষায় একটি গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা পালন করছে। সুতরাং, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যদেশগুলোর সম্মিলিত ভাবে উদ্যোগ গ্রহণ গুরুত্বপূর্ণ।
উল্লেখ্য যে, চলতি বছরে যুক্তরাষ্ট্র জাতিসংঘ সংস্থাটিকে ৬০ মিলিয়ন ডলার দিয়েছে। যেখানে গত বছর এ খাতে তাদের অনুদানের পরিমাণ ছিল ৩৬৫ মিলিয়ন ডলার। গত বৃহষ্পতিবার জর্দান জানায়, সংস্থাটিকে বাঁচানোর জন্যে তহবিল সংগ্রহের উদ্দেশ্যে তারা প্রচারণা চালাবে। এজন্য তারা আরব লীগের কাছেও আবেদন জানাবে।


 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।