Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ০৫ চৈত্র ১৪২৫, ১১ রজব ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

বাতিল ভারতীয় নোট নিয়ে বেকায়দায় ভুটান-নেপাল

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

ভুটান ও নেপালের কাছে থাকা বাতিল হওয়া ভারতীয় মুদ্রানোট ফিরিয়ে নেয়া হবে না বলে ইংগিত দিয়েছে ভারত সরকার। এতেই বেকায়দায় পড়েছে দেশ দু’টি। নয়া দিল্লিতে মিডিয়া ব্রিফিংকালে ভারতের অর্থসচিব সুভাষ চন্দ্র গর্গ বলেন, ‘আমার মনে হয় তাদের কাছে (নেপাল ও ভুটান) খুব স্বল্প পরিমাণে বাতিল হওয়া ভারতীয় ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট রয়েছে। নেপাল ও ভুটানের এসব নোট বিনিময়ের ব্যাপারে চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে ভুটান ও নেপালের হাতে থাকা এসব নোট আমাদের গ্রহণ করার সম্ভাবনা খুবই কম।’ ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাতিল করা মুদ্রানোট সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়া শেষ করেছে বলে বার্ষিক রিপোর্ট প্রকাশের পর গর্গ ওই ব্রিফিং করেন। ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর আকস্মিকভাবে বাজারে প্রচলিত তার মুদ্রা নোটের ৮০ শতাংশই বাতিল ঘোষণা করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিভিন্ন মানের মুদ্রা দিয়ে এগুলো বদলে দেয়া হয়। কালো ও জাল টাকা প্রতিরোধের লক্ষ্যে এই পদক্ষেপ নেয়া হয় বলে সরকার ঘোষণা করে। এই পদক্ষেপ নেপাল ও ভুটানকে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে কারণ এই দেশ দুটির  হাতে প্রচুর পরিমাণে ভারতীয় মুদ্রার রিজার্ভ রয়েছে এবং দেশগুলোর বাজারে ভারতীয় রুপি বৈধ মুদ্রা হিসেবে প্রচলিত। চলতি বছরের মে মাসে দ্বিপাক্ষিক বৈঠককালে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি মোদিকে বাতিল হওয়া মুদ্রানোটের বিষয়টি মনে করিয়ে দেন। হিমালয়ান দেশটির হাতে এখনো ১৪৬ মিলিয়ন ডলারের সমপরিমাণ ভারতীয় বাতিল মুদ্রানোট রয়ে গেছে। ভুটানের কাছে বাতিল করা ভারতীয় মুদ্রানোটের পরিমাণ ৪৫০ মিলিয়ন ডলারের সমপরিমাণ বলে ধারণা করা হয়। এসএএম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন