Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

পাকিস্তানে সামরিক সহায়তা বাতিল

ইমরান খানের ১৮ সদস্যের অর্থনৈতিক উপদেষ্টা পরিষদ গঠিত

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

পাকিস্তানের অর্থনৈতিক সমস্যা মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ১৮ সদস্য বিশিষ্ট অর্থনীতি উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করেছেন। অর্থনৈতিক বিষয়ে সর্বোচ্চ গ্রহণযোগ্য ও পেশাদার সিদ্ধান্ত নিতে সরকারকে সহযোগিতা করতে বিশ্ব বরেণ্য অর্থনীতিবিদদের নিয়ে পরিষদটি গঠন করা হয়েছে। পূর্ববর্তী পরিষদগুলো থেকে এই পরিষদের পার্থক্য হলো, এই পরিষদ সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সাথে কাজ করবে। অর্থ সংক্রান্ত সকল সিদ্ধান্ত বিশ্লেষন ও সঠিক প্রয়োগে পরিষদের সদস্যরা সরাসরি প্রধানমন্ত্রীকে পরামর্শ দিবেন। আগামী সপ্তাহে এর প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হবে। ৭ জন সরকারী ও ১১ জন বেসরকারী সদস্য বিশিষ্ট নতুন অর্থনীতি উপদেষ্টা পরিষদের জন্য অর্থ বিভাগে একটি স্থায়ী সচিবালয় গঠন করার এবং প্রতি মাসে অন্তত একবার সভা আয়োজন বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাদের প্রধান লক্ষ্য হবে অর্থনৈতি উন্নয়নে টেকসই নীতি গ্রহণ ও সরকারের সব ধরনের স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি সিদ্ধান্ত বিশ্লেষণ। অপর এক খবরে বলা হয়, পাকিস্তানকে ৩০ কোটি ডলারের সামরিক সাহায্য বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হওয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্র এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে পেন্টাগনের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল কোন ফকনার জানিয়েছেন। মার্কিন সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানের মধ্যকার টানাপড়েন আরো বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আফগান যুদ্ধে পাকিস্তান ছিল মার্কিন নেতৃত্বাধীন কথিত আন্তর্জাতিক জোটের অন্যতম সহযোগী এবং তার আওতায় পাকিস্তানকে কিছু সামরিক সহায়তা দেয়া হতো। কিন্তু চলতি বছরের প্রথম দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সে তহবিল কাটছাঁটের ঘোষণা দেন এবং তারই অংশ হিসেবে এই ৩০ কোটি ডলার সামরিক সহায়তা বাতিল করা হলো। ট্রাম্প সে সময় বলেছিলেন, আফগান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রপাকিস্তানকে সামরিক সহায়তা দিলেও ইসলামাবাদের কাছ থেকে ওয়াশিংটন মিথ্যা ও প্রতারণা ছাড়া কিছুই পায়নি। পেন্টাগনের মুখপাত্র জানান, চলতি বছরের প্রথম দিকে মার্কিন কংগ্রেস পাকিস্তানকে ৫০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা বাতিল করেছিল। ফলে মোট বাতিল করা তহবিলের পরিমাণ দাঁড়ালো ৮০ কোটি ডলার। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর পাকিস্তান সফরের মাত্র কয়েকদিন আগে যুক্তরাষ্ট্র সামরিক সহায়তা বাতিলের ঘোষণা দিল। পম্পেওর সঙ্গে মার্কিন সেনাপ্রধান জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ডও ইসলামাবাদ সফর করবেন। ট্রাম্প প্রশাসন থেকে বলা হয়, আফগানিস্তানে ১৭ বছর ধরে যুদ্ধ জিইয়ে রাখছে যেসব উগ্রপন্থি তাদের নিরাপদ আশ্রয় দিচ্ছে ইসলামাবাদ। তবে এমন অভিযোগ সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যাখ্যান করে পাকিস্তান। তবু যুক্তরাষ্ট্র জানিয়ে দেয়, পাকিস্তান যদি তাদের আচরণ পরিবর্তন করত পারে তাহলে হয়তো তারা ওই সহায়তা ফিরে পেতে পারে। এই গ্রীষ্মে কোয়ালিশন সাপোর্ট ফান্ড থেকে ওই ৩০ কোটি ডলার ছাড় দেয়ার মতো সুবিধাজনক অবস্থানে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জিম ম্যাটিস। তিনি সেটা করতে পারতেন, যদি দেখতেন উগ্রপন্থিদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান দৃঢ় অবস্থান নিয়েছে। কিন্তু তিনি তা করেননি। ফলে পেন্টাগন মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল কৌন ফকনার বলেছেন, সাউথ এশিয়া স্ট্রাটেজিতে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থতার জন্য পাকিস্তানের সহায়তার ৩০ কোটি ডলার রিপ্রোগ্রাম করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, যদি কংগ্রেস অনুমোদন করে তাহলে এই অর্থ অন্য জরুরি অগ্রাধিকারে ব্যবহার করা হবে। এর আগে এ বছরের শুরুতে পাকিস্তানকে দেয়া আরো ৫০ কোটি ডলারের সহায়তা বাতিল করে কংগ্রেস। ফলে পাকিস্তানকে দেয়া মোট ৮০ কোটি ডলার প্রত্যাহার করে নিল যুক্তরাষ্ট্র।  ডন, রয়টার্স, পার্সটুডে।



 

Show all comments
  • Mahi Biswas ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৪০ পিএম says : 0
    এই সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে এবং মার্কিনীদের জন্য কাল হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • বৃষ্টি ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১১:২৫ এএম says : 0
    পাকিস্তানকে এখন স্বনির্ভরশীল হতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Jainal Abedin ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪:১১ পিএম says : 0
    এই সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে এবং মার্কিনীদের জন্য কাল হবে, This will bring fruitfull benefit for Pakistan .
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর