Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫, ৭ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের পর বিক্রি

আমতলী (বরগুনা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

বরগুনার তালতলীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের পর যৌনপল্লীতে বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এক সন্তানের জনক আবুল কালাম (৩০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। সে মেনীপাড়া গ্রামের আ. বারেক হাওলাদারের ছেলে ও সখিনা কোস্টগার্ড বোটের মাঝি। ধর্ষিতার পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আবুল কালাম ছোটবগী গ্রামের মৃত মজিবর হাওলাদার এর কিশোরী মেয়ে মৌসুমী অক্তারের (১৪) সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দীর্ঘ দুই বছর অবৈধ সম্পর্ক করে আসছে। চার মাস আগে আবুল কালাম প্রেমিকা মৌসুমী আক্তারকে চিকিৎসার কথা বলে পটুয়খালী নিয়ে যৌনপল্লীতে ৫০ হাজার টাকার বিনিময় বিক্রি করে দেয়।
মৌসুমী আক্তার জানায়, কোস্টগার্ড মাঝি আবুল কালাম আমাকে পটুয়াখালী যৌনপল্লীর শাহনাজ নামে এক সর্দারণীর নিকট বিক্রি করে দেয়। সে আমাকে শারীরিক নির্যাতনের মাধ্যমে অবৈধ কাজে বাধ্য করে। ১৫ দিন পরে আমি সেখান থেকে কৌশলে পালিয়ে আসি। এর পর আবুল কালাম আমার সাথে আবার যোগাযোগ করে আমাকে কলাপাড়ায় একটি কুটির শিল্পে প্রশিক্ষণ নিতে ভর্তি করে দেয়। প্রশিক্ষণ শেষে আমি তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে আমাকে বিয়ে করতে টালবাহানা করে এবং আমার সাথে অবৈধ সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে।
সে আরো জানায়, আবুল কালাম আমাকে নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় রাত্রি যাপন করে। বিষয়টি কোস্টগার্ডের সাবেক সিসি ইউসুফসহ কিছু কোস্টগার্ড সদস্যরাও জানেন। আমি বিষয়টি তালতলী থানার ওসির কাছে জানালে তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিকট অভিযোগ দিতে বলেন।
এ ব্যপারে অভিযুক্ত আবুল কালামের সাথে মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। ভোলার কোস্টগার্ড কার্যালয়ের কর্মকর্তা লেঃ কমান্ডার মো. নুরুজ্জামান শেখ জানান, আবুল কালাম মাঝি সখিনা কোস্টগার্ড অফিসে দৈনিক হাজিরায় কাজ করে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগটি আমি গতকাল পেয়েছি, ঘটনার সত্যতা পেলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায় জানান, এ ব্যাপারে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ