Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

মনোনয়ন প্রস্তুত, তফসিলের পর চূড়ান্ত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়ন প্রার্থীদের তালিকা প্রায় প্রস্তুত, তফসিল ঘোষণার পরেই মনোনয়ন কারা পাচ্ছে সেটা চূড়ান্তভাবে বলা যাবে। গতকাল দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁও ইসলামিক ফাউন্ডেশনে ইমামদের রিফ্রেশার্স প্রশিক্ষন কর্মশালায় বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।
হানিফ বলেন, আমাদের দলের সভানেত্রী বিভিন্ন উইংস থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছেন এবং তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতেই সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়া হবে এবং সেই তালিকাও মোটামুটি প্রস্তুত আছে। তফসিলের পর চূড়ান্তভাবে তা জানানো যাবে।
খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে বিএনপির দাবির প্রেক্ষিতে হানিফ বলেন, বিএনপি কী করবে না করবে এটা তাদের রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ব্যাপার। আমরা মনে করি বিএনপি যে দাবিটা করেছে তাদের নেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়ার বিষয়ে, এটা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক দাবি। কারণ আদালতের রায়ে দন্ডপ্রাপ্ত কোনো কয়েদিকে রাজনৈতিকভাবে মুক্তি দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।
তিনি বলেন, একমাত্র প্রেসিডেন্ট পারেন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে। এজন্য খালেদা জিয়াকে মহামান্য  প্রেসিডেন্টের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তাহলে মহামান্য প্রেসিডেন্ট হয়তো বিবেচনা করতে পারেন। এর বাইরে রাজনৈতিকভাবে মুক্ত করার কোনো সুযোগ নেই। বেগম খালেদা জিয়াকে আইনের মাধ্যমেই মুক্ত করে আনতে হবে।
হানিফ বলেন, বিএনপির আজকে এই দাবির  মধ্যে একটি বিষয় জাতির সামনে পরিস্কার হয়ে উঠেছে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া টাকা আত্মসাত করেছিল এই ব্যপারে তার দলের নেতারা সুনিশ্চিত। সুনিশ্চিত হয়েই তারা ধরে নিয়েছেন আদালতে নির্দোষ প্রমান করতে পারবেন না, তাই রাজনৈতিক ভাবে মুক্তির চেষ্টা করছে।
বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি ২০১৪ সালে নির্বাচনে অংশ না নিয়ে সারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করে একটা ভুল রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। এ ধরনের ভুল আবার বিএনপি করবে না। যদি আবারও তারা বিশৃঙ্খলার সিদ্ধান্ত নেয়, দেশ ও  জনগণের বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান থাকে, তাহলে এটাও তাদের জন্য একটা মারাত্মক ভুল সিদ্ধান্ত হবে।
বিএনপির আবার নাশকতার চক্রান্তে লিপ্ত হলে জনগণই শক্তভাবে তা প্রতিহত করবে বলে করেন হানিফ।
নির্বাচন কমিশন পূণর্গঠনের দাবির প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে হানিফ বলেন, সকল রাজনৈতিক দলের সঙ্গে মহামান্য প্রেসিডেন্টের বৈঠক করে সবার পরামর্শের ভিত্তিতেই নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন। সেই নির্বাচন কমিশন কারও ব্যক্তি ইচ্ছা-অনিচ্ছায় যখন তখন ভেঙ্গে দেওয়া, পুনর্গঠন করা, এই ধরনের দাবিটা যৌক্তিক নয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ