Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮, ২৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় শাস্তি পেলেন মৎস্য কর্মকর্তা

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডার কর্মকর্তাসহ সচিব ও অন্যান্য পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও সরকারি বিভিন্ন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে পোস্ট দেয়ায় বিসিএস মৎস্য ক্যাডার কর্মকর্তা বেগম ফারহানা জাহানের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে আগামী এক বছর তার বেতন বৃদ্ধি স্থগিত করা হয়েছে।
গত ২৭ আগস্ট মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব মো. রইছউল আলম মন্ডল স্বাক্ষরিত আদেশ জারি করা হয়েছে। টাঙ্গাইল নাগরপুরের সাবেক উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফারহানা জাহান, বর্তমানে মৎস্য অধিদফতরের বাংলাদেশের নির্বাচিত এলাকায় কুচিয়া ও কাঁকড়া চাষ এবং গবেষণা প্রকল্পের পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন কর্মকর্তা (চাঁদপুর মৎস্য ডিপ্লোমা ইনস্টিটিউটে বদলির আদেশাধীন)।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব মো. রইছউল আলম মন্ডল স্বাক্ষরিত শাস্তির আদেশে বলা হয়েছে, ফারহানা জাহান গত বছরের ১২ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরকারের বিভিন্ন সিদ্ধান্তকে ব্যঙ্গ-বিদ্রপ করে স্ট্যাটাস দেন। পরে ৫ নভেম্বর তাকে ১০ কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়। তিনি ১৪ নভেম্বর তার জবাব দেন। এতে বলা হয়, তার জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী অসদাচরণের দায়ে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ৩ ডিসেম্বর কৈফিয়ত তলব করে। ১৭ ডিসেম্বর লিখিত জবাব দেয়ার ১০ কার্যদিবস পার হওয়া সত্তে¡ও তিনি জবাব না দেয়ায় তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাটি তদন্তের জন্য বিধিমালা অনুযায়ী তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়।
তদন্ত প্রতিবেদনের চূড়ান্ত মতামত অনুযায়ী ফারহানা জাহানের অসদাচণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হলো বলা হয় আদেশে। সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী, ফারহানা জাহানের বেতন বৃদ্ধি এক বছরের জন্য স্থগিতের দন্ড দেয়ার কথাও উল্লেখ করা হয় আদেশে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুকে স্ট্যাটাস
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ