Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

তারুণ্য-অভিজ্ঞতার মিশেলে বাংলাদেশ দল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

আগামীকাল থেকে ঢাকায় শুরু হচ্ছে সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ। স্বাগতিক বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার সাত দেশ দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে এই টুর্নামেন্ট। প্রতিটি ম্যাচই হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এবার বাংলাদেশ পড়েছে ‘এ’ গ্রুপে। সেখানে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল, পাকিস্তান ও ভূটান। ‘বি’ গ্রুপে ফেভারিট ভারতের সঙ্গে আছে মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কা। অংশগ্রহণকারী দলগুলো তাদের দল ঘোষণা করলেও বাকি ছিল বাংলাদেশের দল ঘোষণা। আনুষ্ঠানিকতা না হলেও আগের রাতেই কোচ জেমি ডে চূড়ান্ত করে ফেলেছেন সাফের ২০ সদস্যের দল। প্রাথমিক দল থেকে বাদ পড়েছেন ১০ জন। তিনমাসের অনুশীলন শেষে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়েই বাংলাদেশ দল গড়েছেন-এমনটি দাবি ইংলিশ এই কোচের।
তরুণ ও অভিজ্ঞদের নিয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়েছেন এই ইংলিশ কোচ। ইন্দোনেশিয়ায় এশিয়ান গেমসে খেলা একাদশের খেলোয়াড়দের বেশি সুযোগ করে দিয়েছেন জেমি ডে। দেশের মাটিতে সাফ খেলা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জুয়েল রানা, জাফর ইকবাল এবং নাবীব নেওয়াজ জীবন। বাদ পড়া বাকিরা হলেন মনজুরুর রহমান মানিক, মতিন মিয়া, আব্দুল্লাহ, ফজলে রাব্বি, মাহফুজ হাসান প্রীতম, আনিসুর রহমান জিকো, রহমত মিয়া।
আগামীকাল সাফের উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভূটানের। তার আগে শেষ মুহূর্তে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছেন মামুনুল-জামালরা। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সকালে চূড়ান্ত সেই দল নিয়ে গতকালই প্রথমবার অনুশীলনে নেমেছেন বাংলাদেশ কোচ। সাফে নিজেদের খেলার কৌশল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন অনুশীলনে। চূড়ান্ত স্কোয়াড নিয়ে এক ফাঁকে নানান ব্যাখ্যাও দিয়েছেন। তার মতে সেরা খেলোয়াড়রাই চূড়ান্ত দলে জায়গা পেয়েছে, ‘এশিয়াডে যারা ভালো করেছে। তাদেরকেই স্কোয়াডে রাখা হয়েছে। তাদের সঙ্গে কিছু অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ও নেওয়া হয়েছে। যেন তরুণদের সহায়তা করা যায়। সাফের মতো আসরে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার।’
সাফের গ্রুপ পর্ব পেরুনো যে কঠিন তা মানছেন কোচ। ভুটান, নেপাল ও পাকিস্তান হলো প্রতিপক্ষ। কোচ মনে করছেন দল হিসেবে খেলতে পারলেই বাধা পেরুনো সম্ভব, ‘ছেলেরা অনেক কষ্ট করছে। এখন তারা সেরাটা দেওয়ার অপেক্ষায়। আশা করছি সবাই মিলে একটি দল হিসেবে খেলে গ্রুপ পর্ব পেরুতো পারবো।’ তবে কাজটা যে সহজ হবে না সেটিও মনে করিয়ে দিলেন এই বৃটিশ কোচ, ‘গ্রুপ পর্ব আমাদের জন্য কঠিন এক পরীক্ষা। এখানে ভালো দল আছে। আর ১৫ বছর সাফ জেতা হয়নি। এবার চেষ্টা থাকবে সেই আক্ষেপ ঘুঁচিয়ে স্মরণীয় কিছু করার।’
সাফের স্কোয়াডে জায়গা হয়নি তরুণ জাফর ইকবাল-মতিন ও রহমত মিয়াদের। স্কোয়াড নিয়ে কোচের ব্যাখ্যা, ‘সবাইকে তো দলে নেওয়া যাবে না। সবাই যদিও পরিশ্রম করেছে। কিন্তু চূড়ান্ত স্কোয়াড গড়তে হলে কেউ না কেউ বাদ পড়বে। আমি মনে করি যাদের নেওয়া হয়েছে তারা সবাই যোগ্য। সাফের পরই বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ রয়েছে। সেখানে অন্যদের আবারো দলে ঢোকার সুযোগ আছে।’
চূড়ান্ত দলে জায়গা পেয়েছেন যারা : আশরাফুল ইসলাম রানা, শহীদুল ইসলাম সোহেল, মামুনুল ইসলাম, তপু বর্মন, ইমন মাহমুদ বাবু, ওয়ালি ফয়সাল, টুটুল হোসেন বাদশা, বিশ্বনাথ ঘোষ, মাশুক মিয়া জনি, সুশান্ত ত্রিপুরা, মাহবুবুর রহমান সুফিল, নাসির চৌধুরী, ফয়সাল মাহমুদ, জামাল ভূঁইয়া, আতিকুর রহমান ফাহাদ, বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, সাদ উদ্দীন, সোহেল রানা ও শাখাওয়াত রনি।
সাফ ফুটবলের পূর্ণাঙ্গ সূচি

তারিখ ম্যাচ সময়
গ্রুপ পর্ব
৪ সেপ্টেম্বর নেপাল-পাকিস্তান বিকেল ৪টা
৪ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-ভূটান সন্ধ্যা ৭টা
৫ সেপ্টেম্বর ভারত-শ্রীলঙ্কা সন্ধ্যা ৭টা
৬ সেপ্টেম্বর নেপাল-ভূটান বিকেল ৪টা
৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-পাকিস্তান সন্ধ্যা ৭টা
৭ সেপ্টেম্বর মালদ্বীপ-শ্রীলঙ্কা সন্ধ্যা ৭টা
৮ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান-ভূটান বিকেল ৪টা
৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-নেপাল সন্ধ্যা ৭টা
৯ সেপ্টেম্বর ভারত-মালদ্বীপ সন্ধ্যা ৭টা
সেমি ফাইনাল ১২ সেপ্টেম্বর
‘এ’ চ্যাম্পিয়ন-‘বি’ রানার্সআপ বিকেল ৪টা
‘বি’ চ্যাম্পিয়ন-‘এ’ রানার্সআপ সন্ধ্যা ৭টা
ফাইনাল
১৫ সেপ্টেম্বর দুই সেমিফাইনাল জয়ী সন্ধ্যা ৭টা
*ভেন্যু : বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।