Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বিএনপি ক্ষমতায় এলে তারা প্রথম দিনেই এক লাখ মানুষ হত্যা করবে -বাণিজ্যমন্ত্রী

ভোলা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ২:১৮ পিএম

বিএনপি ক্ষমতায় এলে তারা প্রথম দিনই এক লাখ মানুষ হত্যা করবে। আপনারা কেউ বাড়ি ঘরে থাকতে পারবেন না বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, অশুভের বিরুদ্ধে একটি শুভ সমাজ গড়তে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বিএনপি ক্ষমতায় এলেই সকল উন্নয়ন বন্ধ হয়ে যাবে। বিএনপি ক্ষমতায় এলে পূর্বের মতো তারা আপনাদের উপর নির্যাতন চালাবে। আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে আপনারা শান্তিতে থাকবেন। দেশের উন্নয়নের জন্য শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। রবিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকালে শহরের বাংলাস্কুল মাঠের ভাসানী মঞ্চে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, ভোলা জেলা শাখার আয়োজনে শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি জন্মাষ্টমী শোভাযাত্রা উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের রোল মডেল পরিণত করেছেন, দেশ এখন আন্তর্জাতিক বিশ্বে মর্যাদার আসনে। তার নেতৃত্বে উন্নয়ন হচ্ছে। এ সময় মন্ত্রী হিন্দুদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাদের নিজেদের নিরাপদ মনে করার আহবান জানান এবং হিন্দুদের দাবীর প্রেক্ষিতে ভোলা পৌর মহা-শ্মশানকে অচিরেই একটি আধুনিক শ্মশানে রূপান্তরনের ঘোষনা দেন মন্ত্রী।
ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উদযাপিত হয়। আলোচনা সভা শেষে বাংলাস্কুল মাঠের ভাসানী মঞ্চ থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী ভোলা শহর প্রদক্ষিণ করে ভোলার কেন্দ্রীয় মন্দির মদনমোহন ঠাকুর মন্দিরে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন উপজেলা থেকে ধর্মপ্রাণ হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা অংশগ্রহণ করে।
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে জন্মাষ্টমীর শুভ উদ্বোধন করেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও সিনিয়র সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ভোলার জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, জেলা পুলিশ সুপার মোকতার হোসেন, পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির, জেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, ভোলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার দোস্ত মাহমুদ, ডেপুটি কমান্ডার শফিকুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো: ইউনুছ, ভোলা সদর উপজেলা আ’লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম প্রমুখ। শুরুতেই শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রফেসর দুলাল চন্দ্র ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক বাবু গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে।
ভোলা সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শান্ত ঘোষ এর উপস্থাপনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ভোলা জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম-সম্পাদক অসীম সাহা, ভোলা সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সম্পাদক জয় চন্দ্র দে, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজন সাহা, গণসংযোগ সম্পাদক মিঠুন দে, বাসুদেব ভক্ত, রনজিৎ বেপারী। র‌্যালিতে পুলিশের নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা জোরদার ছিলো।
এদিকে, এছাড়াও শ্রী শ্রী মদনমোহন ঠাকুর জিউর মন্দির শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি জন্মাষ্টমী উদযাপন উপলক্ষে ৬ দিন ব্যাপী জন্ম উৎসবের আয়োজন করেছে। আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) প্রচার কেন্দ্র ভোলা তিন দিন ব্যাপী শ্রী কৃষ্ণের তিথি উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।



 

Show all comments
  • Nannu chowhan ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৩:২২ পিএম says : 0
    Nijera eai shomosto ghum hottar shohit jorito bole BNP keo tai mone korse.chorer mon polish polish.Ashcharjo lage eairokom eakta gorutto purno montranaloyer daiette thaka eakjon montri kivabe odvot banaowat kotha barta bolte pare?Majhe Majhe mone hoy jeno eai desher manush amra shobai bodh hoy pagol othorbo hoye jaitesi eaijonnoi bodh hoy amader shorkarer daitto lokera ajgobi kotha barta amader shonai...
    Total Reply(0) Reply
  • nurul alam ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৩:৫৮ পিএম says : 0
    এক লক্ষ লোককে কেন মরতে হবে বা হত্যা করা হবে তার ব্যাখ্যা দেবেন কি ? এর ব্যাখ্যা আছে সাধারণ মানুষের মনে যাদেরকে গুম করেছেন, যাদেরকে নিপীড়ন করেছেন, যাদেরকে বিনা অপরাধে মামলায় জড়িয়ে তাদের জীনটা তছনছ করে দিয়েছেন তাদের উত্তরসুরী এবং তারা । আপনাদের অপকর্ম এতবেশী হয়ে গেছে যে রাতদিন তা আপনাদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে । উন্নয়নের তকমা এখন আর মানুষ খায়না । অত অন্যায়, এত জুলুম এত ব্যবিচার এদেশের মানুষ এর আগে দেখেছে কী ? এর নাম গণতন্ত্র ? এর নাম শাসন ? এর নাম উন্নয়ন ? হ্যাঁ, উন্নয়ন হয়েছে এগুলোর- গুমতন্ত্রের উন্নয়ন, অন্যায়তন্ত্রের উন্নয়ন, জুলুমতন্ত্রের উন্নয়ন, ব্যবিচারতন্ত্রের উন্নয়ন, লুটপাট তন্ত্রের উন্নয়ন, ধর্ষণ তন্ত্রের উন্নয়ন, অর্থ পাচারতন্ত্রের উন্নয়ন । যারা এসব করেছে বা করিয়েছে তাদের মনে ভয়তো থাকবেই । জুলুমবাজরা কখনোই রেহাই পায়নি ইতিহাস সে স্বাক্ষী হয়েই আছে ।
    Total Reply(0) Reply
  • nurul alam ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৫:১৯ পিএম says : 0
    এক লক্ষ লোককে কেন মরতে হবে বা হত্যা করা হবে তার ব্যাখ্যা দেবেন কি ? এর ব্যাখ্যা আছে সাধারণ মানুষের মনে যাদেরকে গুম করেছেন, যাদেরকে নিপীড়ন করেছেন, যাদেরকে বিনা অপরাধে মামলায় জড়িয়ে তাদের জীনটা তছনছ করে দিয়েছেন তাদের উত্তরসুরী এবং তারা । আপনাদের অপকর্ম এতবেশী হয়ে গেছে যে রাতদিন তা আপনাদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে । উন্নয়নের তকমা এখন আর মানুষ খায়না । অত অন্যায়, এত জুলুম এত ব্যবিচার এদেশের মানুষ এর আগে দেখেছে কী ? এর নাম গণতন্ত্র ? এর নাম শাসন ? এর নাম উন্নয়ন ? হ্যাঁ, উন্নয়ন হয়েছে এগুলোর- গুমতন্ত্রের উন্নয়ন, অন্যায়তন্ত্রের উন্নয়ন, জুলুমতন্ত্রের উন্নয়ন, ব্যবিচারতন্ত্রের উন্নয়ন, লুটপাট তন্ত্রের উন্নয়ন, ধর্ষণ তন্ত্রের উন্নয়ন, অর্থ পাচারতন্ত্রের উন্নয়ন । যারা এসব করেছে বা করিয়েছে তাদের মনে ভয়তো থাকবেই । জুলুমবাজরা কখনোই রেহাই পায়নি ইতিহাস সে স্বাক্ষী হয়েই আছে ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৫:২৮ পিএম says : 0
    কেন হত্যা করিবে? আপনারাকি খোনী? কত হত্যা গুম করিয়াছেন? দেশের অবস্থা কি বারোটা বাজাতে চান। ফারাক্কা বাঁধ কে দিয়াছে? ওরা আপনাদের বন্ধু কি?
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৫:২৮ পিএম says : 0
    কেন হত্যা করিবে? আপনারাকি খোনী? কত হত্যা গুম করিয়াছেন? দেশের অবস্থা কি বারোটা বাজাতে চান। ফারাক্কা বাঁধ কে দিয়াছে? ওরা আপনাদের বন্ধু কি?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ