Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

রয়টার্স সাংবাদিকদের মুক্তি দাবি

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

মিয়ানমারে কারাদণ্ড প্রাপ্ত রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের অবিলম্বে ও নিঃশর্ত মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের দূত নিকি হ্যালি, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এবং জাতিসংঘের মাসবাধিকার বিষয়ক কমিশনার মিশেল ব্যাশেলেট। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে তারা এ আহ্বান জানান। থেরেসা মে বলেন, আদালতে তাদের বিরুদ্ধে শুনানিতে মিয়ানমারে আমাদের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। কাজেই তাদের বিরুদ্ধে রায় ও সাজায় আমরা চরম হতাশ। তিনি বলেন, আমি দুই সাংবাদিকের অতিসত্বর মুক্তি চাচ্ছি। সোমবার টুইটারে এক বার্তায় জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্র মিশন কর্তৃক প্রকাশিত টুইটে নিকি হ্যালি বলেন, দায়িত্ব পালন করার কারণে সাংবাদিকদের সাজা পাওয়া বার্মিজ সরকারের জন্য বড় ধরনের কলঙ্ক। নিকি হ্যালি বলেন, এটা স্পষ্ট যে মিয়ানমার সরকার বড় ধরনের নিপীড়ন চালিয়েছে। একটি মুক্ত দেশে মানুষকে সবকিছু সম্পর্কে অবহিত রাখা দায়িত্বশীল সংবাদমাধ্যমের কর্তব্য। নেতাদের জবাবদিহিতার আওতায় রাখা দেশের দায়িত্ব। সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতিত্বের দায়িত্ব পালন করবে যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে মিয়নামার কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন। মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দণ্ডিত রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের নতুন মানবাধিকার বিষয়ক হাই কমিশনার মিশেল ব্যাশেলেট। রাখাইনের সেনা অভিযানের সময় ইনদিন গ্রামে ১০ রোহিঙ্গাকে হত্যা করে লাশ পুঁতে ফেলার একটি ঘটনা বিশ্বের সামনে তুলে ধরেছিলেন ওই দুই সাংবাদিক। রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন