Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় খুলছে পানশালা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ পিএম

২০১১ সালে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধের পর বন্ধই হয়ে গিয়েছিল দেশটির পর্যটনশিল্প। ফলে অন্য অনেকের মতোই ব্যবসা গুটিয়ে যায় সোমার হাজিমের। তিনি তখন বন্ধ করে দিয়েছিলেন তার বুটিক হোটেল।

এর পর লাখ লাখ মানুষ যখন দেশ ছেড়ে বাঁচল, তখনও সব হারানো সোমার থাকলেন দেশেই। সাত বছরের মাথায় এসে পরিস্থিতি পাল্টেছে। রাজধানী দামেস্ক এখন পুরোপুরি সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে।

শহরের পুরনো অংশে সোমার হাজিম শুরু করেছেন পানশালা, যেটি যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় শুরু হওয়া প্রথম পানশালা।

যদিও বিশ্ব র‍্যাংকিংয়ে দামেস্ক বসবাসের জন্য সবচেয়ে নিকৃষ্ট শহর, তার পরও সোমার বলছেন, এখানেও এখন নৈশজীবন দারুণ আকর্ষণীয়।

সোমার স্বীকার করেন যে, ২০১৫ সালে তিনি যখন ঝুঁকি নিয়ে পানশালার যাত্রা শুরু করেন, সেটি ছিল ব্যবসা শুরুর জন্য সত্যিই কঠিন সময়। তিনি বলেন, অনেকেই আসত জায়গাটি দেখতে যে- কে এই যুদ্ধের মধ্যে এটি বানাল।-খবর বিবিসি বাংলার।

এবারের গ্রীষ্মে রাশিয়ানদের সহযোগিতায় সিরিয়া সরকার বিদ্রোহীদের পরাজিত করে দামেস্কের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। আর এই স্থিতাবস্থাই দামেস্ককে ধীরে ধীরে জাগিয়ে তুলছে বিশেষ করে নৈশজীবন ক্রমশই প্রাণ ফিরে পাচ্ছে।

সোমার বলেন, শুরুর দিকে এ ধরনের পানশালা ৩/৪টি ছিল। আর এখন আপনি অন্তত ত্রিশটি খুঁজে পাবেন।

রাজধানীর জীবনে স্বাভাবিকতাও ফিরে আসতে শুরু করেছে, যদিও সিরিয়া যুদ্ধ এখনও একেবারেই শেষ হয়ে যায়নি।

জাতিসংঘের ধারণা- এখনও ২০-৩০ হাজার কথিত আইএস জঙ্গি আছে সিরিয়া ও ইরাকে। কিন্তু তার পরও আশাবাদী সোমার হাজিম।

তার মতে, এটি যদিও সেই আগের দামেস্ক নয়, কিন্তু আমি মনে করি এটি আরেকটি শহর হতে চলেছে।

তার আশা একদিন তার বুটিক হোটেলটিও আবার চালু হবে, জমজমাট হবে দেশটির পর্যটন। তার মতে, হয়তো সব কিছু ভুলে নতুন করে শুরু করতে কিছুটা সময় লাগবে, কিন্তু তার পরও সেরা সময় সামনেই বলে তার বিশ্বাস।



 

Show all comments
  • ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৭:০৬ পিএম says : 0
    সঠিক মতামত মনে হছেচ. আগামী নতুন বছরের ভিতরে সিরিয়া আর নতুন জৗবন ফিরে পাবে নিমুল হবে সকল সনএাসৗ গোষ্ঠী এবং মদদকারৗ আমেরিকা এবং ইসরায়েল এর সকল ষড়যন্ত্র .
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর