Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ব্রহ্মপুত্র-যমুনায় পানি বেড়ে উজানে বন্যা

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

উজানে চীন ও ভারতে ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এতে করে চীনের বিভিন্ন অঞ্চলে এবং উজানে বাংলাদেশের ওপারে উত্তর-পূর্ব ভারতের অরুণাচল ও আসাম রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে। সেখানে অন্তত সাতটি জেলা বন্যা কবলিত হয়েছে। অতি বর্ষণে ব্রহ্মপুত্রের উৎসে চীনের স্যাংপো নদীর পানির চাপে এ বন্যার সৃষ্টি হয়। উজানের ঢলে ভাটিতে বাংলাদেশে ব্রহ্মপুত্র নদপাড়ের উত্তর জনপদে আপাতত বন্যা পরিস্থিতির আশঙ্কা দেখছে না পানি উন্নয়ন বোর্ড।
পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র দশ দিনের সম্ভাব্য পূর্বাভাসে গতকাল (বুধবার) জানায়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদের পানির সমতল স্থিতাবস্থা থেকে বৃদ্ধি পেতে পারে। ব্রহ্মপুত্র-যমুনা অববাহিকার বাহাদুরাবাদ থেকে আরিচা স্টেশন পর্যন্ত পানির সমতল সতর্কসীমায় (বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটারের মধ্যে) পৌঁছাতে পারে।
অন্যদিকে গঙ্গা-পদ্মা নদ-নদী অববাহিকায়ও পানির সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে। পদ্মা নদীর পানির সমতল গোয়ালন্দ স্টেশনে আগামী ৫ দিনের মধ্যে বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটারের মধ্যে পৌঁছাতে পারে। ঢাকার চারপাশের নদীগুলোর পানির সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে। তবে পূর্বাভাসে ঢাকার আশপাশের নদ-নদীগুলোর পানির সমতল বিপদসীমা অতিক্রম করার আশঙ্কা নেই। পূর্বাভাসে পাউবো জানায়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদের পানির সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা নদীর পানির সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং তা আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। পদ্মা নদীর পানির সমতল আগামী ২৪ ঘণ্টায় বৃদ্ধি পেতে পারে।
গতকাল দেশের ৯৪টি পানির সমতল পর্যবেক্ষণ স্টেশনের মধ্যে ৪৯ পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি এবং ৩৬টিতে হ্রাস পায়। অপরিবর্তিত ছিল ৮টি স্থানে। আগের দিনও (মঙ্গলবার) ৪৯ পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি এবং ৩৬টিতে হ্রাস পায়। গত সোমবার ৫৮টি পয়েন্টে পানি এবং ৩০টিতে হ্রাস পায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ