Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

কালের সাক্ষী প্রবাজপুর শাহী মসজিদ

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) থেকে রবিউল ইসলাম | প্রকাশের সময় : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম


কালিগঞ্জ সদর থেকে মাত্র চার কিলোমিটার দূরে কালেরসাক্ষী হয়ে আজও দাড়িয়ে আছে মুঘল আমলে নির্মিত ঐতিহাসিক প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদ। মুসলিম স্থাপত্যের এই অনুপম নিদর্শন যা সম্রাটা আওরঙ্গজেবের সময়ে নির্মিত। ইতিহাস থেকে জানা যায়, ১১০৪ হিজরি সনে (১৯ রমজান) অর্থাৎ ১৬৭৮ খৃস্টাব্দের ২ মে তৎকালীন দুলিহার পরগনায় প্রতিষ্ঠিত হয় প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদ। সম্রাট আওরঙ্গজেবের নির্দেশে তার সেনাবাহিনীর নামাজের জন্য মসজিদটি নির্মাণ করা হয়। এক গম্বুজবিশিষ্ট মসজিদটি প্রাচীন স্থাপত্যশৈলী হিসেবে এখনও সবার নজর কাড়ছে। তবে, মসজিদটি জ্বীনের তৈরি বলেও অভিমত রয়েছে। এই মসজিদের নির্মাণ কাজে ফৌজদার নবাব নুরুল্লাহ খাঁ ৫২ বিঘা জমি দান করেছেন। সম্রাট আওরঙ্গজেবের নির্দেশে সুবেদার পরবাজ খাঁ এই মসজিদ নির্মাণ করেন বিধায় সুবেদার পরবাজ খাঁর নামানুসারে ওই গ্রামের নাম হয়েছে প্রবাজপুর এবং মসজিদটির নাম দেওয়া হয়েছে প্রবাজপুর শাহী মসজিদ।
দৃষ্টিনন্দন এ মসজিদটির বহির্বিভাগের দৈর্ঘ্য ৫২ ফুট ৫ ইঞ্চি এবং প্রস্থ ৩৯ ফুট ৮ ইঞ্চি। মসজিদের অভ্যন্তরে ২১ ফুট ৬ ইঞ্চির বর্গাকৃতির একটি নামাজের জায়গা রয়েছে। মসজিদের দেয়ালগুলো ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি থেকে ৭ ফুট পুরু। আর মসজিদের প্রধান দরজাটি ৪ ফুট ৭ ইঞ্চি প্রশস্ত। এছাড়া ৬ পুট ৯ ইঞ্চি প্রশস্ত একটি বারান্দা ছিল যা এখন আর নেই। মসজিদটিতে মোট ১০টি দরজা থাকলেও বর্তমানে দরজার নিচের অংশে পাতলা প্রাচীর নির্মাণ করে জানালার আকৃতি করা হয়েছে। তিনটি অলংকৃত মেহরাবও রয়েছে মসজিদটিতে।
জানা যায়, ১৯৬৫ সালে পরিত্যক্ত মসজিদটি কালিগঞ্জ উপজেলার মুকুন্দপুর গ্রামের সোহরাব আলী পরিস্কার
পরিচ্ছন্ন করে নামাজের উপযোগী করেন। সুলতানী আমলে নির্মিত প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদ একটি প্রাচীন এবং স্থাপনা, যা ইসলামী ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক। দেশ ও দেশের বাইরের অনেক পর্যটক এখনও মসজিদটি দেখার জন্য সেখানে ভীড় করেন।
যেভাবে যাবেন প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদে : দেশের যে কোন স্থান থেকে সাতক্ষীরা পৌঁছে বাস বা মোটরসাইকেল যোগে যেতে পারেন কালিগঞ্জ উপজেলায়। বাসে ৫০ টাকা, মোটরসাইকেলে ১০০ টাকায় পৌঁছানো যাবে সেখানে। এরপরে কালিগঞ্জের ফুলতলা মোড় থেকে ভ্যানে (ভাড়া ১০ টাকা) করে পাওখালি মোড়ে নামতে হবে। পাওখালি বাজার থেকে আবার ভ্যানে করে দেয়া বাজারের উপর দিয়ে প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদে পৌঁছানো যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।