Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ১১ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

প্রকাশ্য বেত্রাঘাতে ইসলামের সৌন্দর্য ক্ষুন্ন হয় : মাহাথির

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম | আপডেট : ১২:১৩ এএম, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ এক বিবৃতিতে দুই মুসলিম নারীকে সমকামিতার অভিযোগে বেত্রাঘাত করার কড়া সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, মালয়েশিয়াতে সমকামিতার অভিযোগে জনসম্মুখে বেত্রাঘাত করার যে প্রচলিত নিয়ম রয়েছে, তাতে ইসলাম সম্পর্কে ভুল বার্তা ছড়িয়ে পড়তে পারে। এতে ইসলাম ধর্ম নির্মম এবং জনসাধারণের প্রতি অপমানকর হিসেবে চিত্রায়িত হয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার দেশটির কিছু নাগরিক দুইজন মুসলিম নারীকে সমকামিতার অভিযোগে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত করার পরে ড. মাহাথির মোহাম্মদ এই বিবৃতিটি দেন। এটি ছিল তার মন্ত্রিসভার দায়িত্ব নেয়ার পর বিতর্কিত বিষয়ে দেয়া প্রথম কোনো বিবৃতি। এদিকে মালয়েশিয়ার অনেক এনজিও এই ঘটনাকে মানবাধিকার পরিপন্থী কাজ বলে বর্ণনা করেছেন। ড. মাহাথির মোহাম্মদ তার ফেইসবুক একাউন্টে একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, তেরেনগানু শরিয়া আদালত কর্তৃক এ ধরনের শাস্তি দেয়ার মাধ্যমে ইসলামের সত্যিকারের সৌন্দর্য ক্ষ্ণুন্ন হয়। তিনি এ ধরনের অপরাধের জন্য ভবিষ্যতে আরো হালকা শাস্তি দেয়ার আহ্বান জানান। ‘এটি ছিল অভিযুক্তদের জন্য প্রথম কোনো অপরাধ। যখন এধরনের অপরাধ প্রথম করা হয় তখন অভিযুক্তদের উত্তম উপদেশ দেয়া উচিত। প্রথমেই অভিযুক্তদের বেত্রাঘাত করার মত শাস্তি দেয়া হলে এগুলো বিশ্বব্যাপী নেতিবাচক ভাবে প্রচার পেয়ে যায়।’ ‘এর ফলে আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়ের মনে ইসলাম ধর্মের প্রতি বিরূপ ধারণা তৈরী হয় বলে উল্লেখ করেন ড. মাহাথির। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে দেশটির দুইজন মুসলিম নারী তাদের ব্যক্তিগত গাড়িতে সমকামিতা করার অভিযোগে অভিযুক্ত হন এবং তেরেনগানু শরিয়া আদালত সোমবার অভিযুক্তদের প্রত্যেককে প্রকাশ্যে ছয় বার করে বেত্রাঘাত করার দন্ড দেন। পরবর্তীতে প্রকাশ্যে এই দন্ড কার্যকর করা হয়। ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর