Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

১৩ দিন পর উদ্ধার নির্যাতনের অভিযোগ

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

ঝিনাইদহ শহরের পবহাটী এলাকা থেকে অপহরণের ১৩ দিন পর আরিফ হুসাইন (২৯) নামে এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে যুবকের চিৎকার চেচামেচি শুনে স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। মালয়েশিয়া ভিত্তিক মেডিকো গ্রুরুপের এরিয়া ম্যানেজার আরিফ মহেশপুর উপজেলার গৌরিনাথপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে। পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে হারুনের চাচাতো ভাই লাভলু ও কর্মচারী তৌহিদুজ্জামানকে গ্রেফতার করেছে। অরিফ অভিযোগ করেন, ১৩ দিন আটকে রেখে তার উপর অকথ্য নির্যান করা হয়েছে। তাকে শোবার জন্য বিছানা দেওয়া হয় নি। চেয়ারে বসিয়ে রেখে মারধর করা হয়েছে। আরিফের ভাষ্যমতে গত ২৬ আগষ্ট ঝিনাইদহ শহরের পায়রা চত্বর থেকে সৃজনী এনজিওর নির্বাহী পরিচালক হারুন অর রশিদের ছেলে তামিম তাকে কিডন্যাপ করে নিয়ে যায়। সেই থেকে আরিফ পবহাটী গ্রামে সৃজনীর হেড অফিসে ৯দিন ও হারুনের বাগান বাড়িতে ৪ দিন আটক ছিলেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি ইমদাদুল হক শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বিদেশী ঋনের জন্য উদ্ধারকৃত আরিফ হুসাইন তিয়ানশি গ্রুপে কর্মরত নাসির নামে আরেক যুবকের সাথে সৃজনীর নির্বাহী পরিচালকে পরিচয় করে দেয়। সৃজনী প্রতিষ্ঠান নাসিরের কাছ থেকে প্রতারিত হয়ে নাসিরকে আর খুজে পয়নি। এ কারণে আরিফকেই তারা আটকে রেখে সাদা স্ট্যাম্প সাক্ষর করে নিয়েছে। এ সময় আরিফকে দিয়ে ব্যাংক একাউন্ট খুলে সাদা চেকে সাক্ষর করানোর চেষ্টা করে সৃজনী কর্তৃপক্ষ। ওসি জানান, টাকার জন্য কারো আটকে রেখে মারধর করা অন্যায়। তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত আরিফকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ রুবিনা পারভিন জানান, এসআই পিন্টু লাল দাস নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা নির্যাতিত আরিফকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তার বাম পয়ের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আরিফের বোন বুলবুলি খাতুন ও ভগ্নিপতি আরিফুল ইসলাম ছিটু অভিযোগ করেন, ১৩ দিন আটকিয়ে রেখে একটি গোপন ঘরে যে ভাবে আরিফকে নির্যাতন করা হয়েছে আমরা এ ঘটনার বিচার চাই। বোন বুলবুলি খাতুনের দাবী সৃজনী থেকে ঋন নিয়ে যারা পরিশোধ করতে পারে না তাদেরকে লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে ধরে এনে এভাবেই নির্যাতন করা হয়। পবহাটী গ্রামে সৃজনী কর্তৃপক্ষের বাগান বাড়িতে টর্চার সেল রয়েছে। সেখান থেকে প্রায়ই নির্যাতিতদের কন্ঠ ভেসে আসে। আমার ভাইকেও সেখানে রেখে নির্যাতন করা হয় বলে বুলবুলি অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে সৃজনীর নির্বাহী পরিচালক ড. হারুন অর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, একটি প্রজেক্ট নিয়ে আরিফের সাথে লেদদেন হয়। কিন্তু সেই টাকা ফেরৎ না দেওয়ায় আমরা তাকে অফিসে ৩ দিন রেখে দিই। তাকে আটকে রেখে মারধর বা কোন নির্যাতন করা হয়নি। তাকে ১৩ দিন আটকে রাখা হয় নি বলেও তিনি দাবী করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ