Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

হজে অবস্থান করেও নাশকতা মামলার আসামী!

তানোর (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮:৫১ পিএম

হজে সউদী আরবে অবস্থান করলেও রাজশাহীর তানোর থানা পুলিশ জালাল উদ্দিনকে নাশকতা ও বিস্ফোরক মামলার আসামি করেছে। জালাল উদ্দিনের বাড়ি তানোর পৌর সদর কুঠিপাড়া গ্রামে। তিনি আক্কাস উদ্দিনের পুত্র। জালাল উদ্দিনকে আসামী করার খবর ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী সহ পুরো তানোরবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন। জালাল উদ্দিন এখনও সউদী আরবে অবস্থান করছেন বলে তার পরিবারের সদস্যরা জানান।
জানা গেছে, চলতি মাসের ৩ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টার দিকে উপজেলার কামারগা ইউপি এলাকার বারোঘরিয়া গ্রামের জামায়াত নেতা ওবাইদুরের ওষুধের দোকানে গোপন বৈঠক চলছে, এহেন খবরের ভিত্তিতে পুলিশ হানা দেয়। ঘটনাস্থল থেকে ওবাইদুরকে আটক করে থানা পুলিশ । আটকের পর তার দোকানে তল্লাসি চালিয়ে ৪টি ককটেল বোমা এবং ৪টি পেট্রোল বোমা উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বাদি হয়ে বিএনপি জামায়াতের নামধারী ৩০ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ এবং ৩৫/৪০ জন অজ্ঞাত ব্যক্তির নামে নাশকতা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় হজে অবস্থানরত জালাল উদ্দিনকে ২৫ নম্বর আসামি করা হয়।
জালালের গ্রামের একাধিক ব্যক্তি জানান, একজন ব্যক্তি হজে অবস্থান করছেন। সউদী আরবে থেকে তিনি কিভাবে মামলার আসামি হন। বিষয়টি আমাদেরকে ভাবিয়ে তুলেছে। তাহলে কি প্রশাসন যাকে খুশি তার নামেই মামলা করবে। এটি কোন ধরনের আইন । এ সবের আমরা তীব্র নিন্দা জানাই । আসলে জালাল প্রতিহিংসার শিকার, তা নাহলে কেন তাকে মামলার আসামি করা হবে।
তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম জানান, আটক ব্যক্তি যেভাবে নাম দিয়েছে সেভাবে আসামীদের নাম দেয়া হয়েছে। মামলার সময় সেভাবে যাচাই বাছাই করা হয়নি। হয়তো ভুলে মামলার আসামি হয়েছে জালাল। তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার সাথে জড়িত না থাকলে নাম বাদ যাবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ