Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

চট্টগ্রামে চাঁদাবাজি নিয়ে সংঘর্ষ নিহত ১ আহত ৭

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮:০৭ পিএম
নগরীর দক্ষিণ খুলশীতে চাঁদাবাজি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত এবং সাতজন আহত হয়েছেন। গত শুক্রবার গভীর রাতে দক্ষিণ খুলশীর ভিআইপি আবাসিক এলাকায় এই সংঘর্ষ হয়। নিহত হৃদয় হোসেন ওরফে শুক্কুর (২২) খুলশী থানার ঝাউতলা এলাকায় আবুল খায়েরের পুত্র। পেশায় তিনি একজন দর্জি। পুলিশ জানিয়েছে, চাঁদাবাজি এবং এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, এলাকায় চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করতে গিয়েই প্রাণ দিতে হয়েছে হৃদয়কে।
স্থানীয়রা জানান, ওই এলাকায় শুক্রবার রাতে ভবন নির্মাণের সামগ্রী নিয়ে একটি ট্রাক আসে। সেই ট্রাক থেকে কে চাঁদা নেবে, তা নিয়ে বিরোধের জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়। হৃদয়ের বন্ধু মো. রুবেল জানান, ঝাউতলা এলাকায় তাদের আরেক বন্ধু সাইফুলদের বাড়ি নির্মাণের জন্য ইট নেওয়া হয়েছিল। ট্রাক থেকে ইট নামানোর সময় রনি ও আনিস নামে দুই সন্ত্রাসী গিয়ে তাদের বাধা দেয়। দুই লাখ টাকা চাঁদা না দিলে ইট নামাতে দেওয়া হবে না বলে জানায় সন্ত্রাসীরা। এ সময় সাইফুল তার বন্ধু হৃদয়ের বাসায় গিয়ে তাকে ডেকে আনে। রুবেলসহ আরও কয়েকজন বন্ধুবান্ধব নিয়ে তারা চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করলে ঝগড়া শুরু হয়। এরপর শুরু হয় লোহার রড, ইট ইত্যাদি নিয়ে উভয়পক্ষে সংঘর্ষ। 
খুলশী থানার ওসি শেখ মো. নাসির উদ্দিন বলেন, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে মোট ৮ জন আহত হন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হৃদয় সকালে মারা যান। লাঠির আঘাতে তিনি গুরুতর আহত হয়েছিলেন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক আব্দুল হামিদ বলেন, সকাল পৌনে ৮টার দিকে হৃদয় মারা যায়। গত রাতে ছয়জনকে ভর্তি করা হয়েছিল। দুজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। তবে তিনজন এখনো চিকিৎসাধীন আছেন। নাসির উদ্দিন জানান, তিনজন হাসপাতালে আছে, সেখানে পুলিশ পাহারা রয়েছে। মামলা হলে তাদের গ্রেফতার করা হবে। 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ