Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

স্বল্প সুদে কৃষি ঋণ - ভর্তুকির বাকি অর্থ চাইল বিকেবি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

২০১৬-১৭ অর্থবছরে গ্রামাঞ্চলে স্বল্প সুদে বিতরণ করা কৃষি ঋণের সুদ ভর্তুকিবাবদ বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে (বিকেবি) ৩৬৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকা দিতে চেয়েছিল সরকার। এখন পর্যন্ত অর্থ মন্ত্রণালয় এ খাতে দিয়েছে ১৬৪ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। তাই বাকি ২০৩ কোটি ৭২ লাখ টাকা ছাড় করতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের নিকট আবেদন করেছে বিকেবি কর্তৃপক্ষ। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
সম্প্রতি বিকেবি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী হোসেন প্রধানিয়া স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে এই অর্থ চাওয়া হয়। এমনকি দ্রæত এই অর্থ ছাড় করারও অনুরোধ জানানো হয়েছে চিঠিতে। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, স্বল্প সুদে কৃষি ঋণ বিতরণে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে মোট সুদ ভর্তুকির পরিমাণ ৩৬৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয় ছাড় করেছে ১৬৪ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। বাকি ২০৩ কোটি ৭২ লাখ টাকা ছাড় করার জন্য অনুরোধ করা হলো।
অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, দুই বছর আগে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে কম সুদে কৃষকদের মাঝে ঋণ বিতরণের জন্য সরকারের কাছে মোট এক হাজার ৫৫৮ কোটি ৮২ লাখ টাকা ভর্তুকি দাবি করে বিকেবি কর্তৃপক্ষ। পরে বাংলাদেশ ব্যাংক যাচাই-বাছাই করে ব্যাংকটিকে মোট ৩৬৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকা ভর্তুকি দেয়ার সুপারিশ করে।
বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে ব্যাংকটির মূলধন ঘাটতির পরিমাণ ৮ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। এ পরিমাণ ঘাটতি নিয়ে ব্যাংকটির ব্যবসা পরিচালনা ও ঋণদান কর্মসূচি কঠিন হয়ে পড়েছে। যদিও গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাজেটে বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে বিকেবি’র ঘাটতি মেটাতে ৪০০ কোটি টাকা দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর