Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ১১ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ব্যথায় ম্যাচ ছাড়লেন নাদাল

জোকোভিচ-দেল পোত্রো ফাইনাল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

হাঁটুতে তীব্র ব্যাথা নিয়েও প্রথম সেট নিলেন টাইব্রকারে, দ্বিতীয় সেটেও পেরে উঠলেন না। এরই মাঝে দুবার নিতে হয়েছে ডাক্তারের শুশ্রƒষা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর চালিয়ে যেতে পারেননি টেনিসের এক নম্বর তারকা রাফায়েল নাদাল। মাঝ ম্যাচে তার অবসর হুয়ান মার্টিন দেল পোত্রোকে তুলে দিয়েছে ইউএস ওপেনের ফাইনালে।
‘খেলা চালিয়ে যাওয়া আমার জন্য কঠিন ছিল। আমি তীব্র ব্যাথায় ভুগছিলাম।’, ম্যাচ শেষে নাদাল আরো বলেন, ‘এটি ছিল একজন খেলোয়াড়ের ম্যাচ, অন্য প্রান্তে কেউ ছিল না। আমি অবসরে যাওয়াকে ঘৃণা করি। কিন্তু আর একটি সেটও আমার পক্ষে চালিয়ে যাওয়া সম্ভব ছিল না।’ ১৭ গ্র্যান্ড ¯ø্যামের মালিক বলেন, ‘সিদ্ধান্তটা কঠিন ছিল, তবে আপনাকে এটা করতেই হতো।’ তৃতীয় রাউন্ডে রাশিয়ার কারেন কাচানোভকে হারানো ম্যাচেও ডান হাঁটুর সমস্যায় পড়া ৩২ বছর বয়সী এভাবে ম্যাচ ছেড়ে দেয়ায় হতাশ, ‘আমি যদ্দুর সম্ভব অপক্ষো করেছি। ম্যাচ শেষ না করে এভাবে বিদায় বলা আমার জন্যে ছিল কষ্টের। কিন্তু কিছু সময়ে আপনাকে এটা করতেই হয়।’
নাদাল মাঠ ছাড়ার সময় আর্জেন্টিনার তিন নম্বর বাছাই পোত্রো এগিয়ে ছিলেন ৭-৬ (৭-৩), ৬-২ গেমে। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় গ্র্যান্ড ¯ø্যাম ফাইনালে তাকে লড়তে হবে নোভাক জোকোভিচের বিপক্ষে। নয় বছর আগে ক্যারিয়ারের একমাত্র গ্র্যান্ড ¯ø্যামটি এখানেই জিতেছিলেন পোত্রো।
কিন্তু এভাবে ফাইনালে উঠতে চাননি ২৯ বছর বয়সী, ‘এভাবে ম্যাচ জয় কোন ভালো উপায় নয়। আমি রাফার বিপক্ষে খেলতে চাই, কারণ সে এই খেলার সবচেয়ে বড় নাম।’ নাদালকে এমন অসহায় অবস্থায় দেখে মন ভালো নেই পোত্রোর, ‘আমি তাকে কোনদিন এভাবে ভুগতে দেখিনি। তার জন্য আমার দুঃখ হচ্ছে। আমি মনে করি ম্যাচের চাবি ছিল প্রথম সেটেই।’
নিউ ইয়র্কের ফ্লাশিং মিডোয় আজকের ফাইনালটা হতে পারে জোকোভিচের। জিতলেই পিট সাম্প্রাসের ১৪ গ্রান্ড ¯ø্যামের সংখ্যায় ভাগ বসাবেন সার্বিয়ান তারকা। জাপানের ২১ নম্বর বাছাই কেই নিশিকোরিকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-২ গেমে উড়িয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেন জোকোভিচ। আজ পোত্রোকে হারাতে পারলে টেনিসের সর্বোচ্চ শিরোপা জয়ে তার সামনে থাকবেন কেবল নাদাল ও ফেদেরার (২০টি)।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর