Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

আ.লীগ নেতার বাড়িতে সরকারি পানির পাম্প

তানোর(রাজশাহী)উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৩৯ এএম

রাজশাহীর তানোরে সরকারের দেয়া গ্রামবাসীর জন্য সাবমারসিবুল পানির পাম্প জনবহুল জায়গায় না বসিয়ে তালন্দ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমানের নিজ বাড়িতে বসিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।উপজেলার তালন্দ ইউপি এলাকার আড়াদিঘি পূর্বপাড়া গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। তিনি সরকারি পাম্প বসিয়েই ক্ষান্ত হননি আড়াদিঘি গ্রামের মরাপুকুরিয়া নামক জায়গা থেকে বিএমডিএর বিশাল আকারের এগারো থেকে বারোটি গাছ কেটে বানিয়েছেন বাড়ির আসবাবপত্র।
সরজমিনে দেখা যায়, উপজেলার তালন্দ ইউপির আড়াদিঘি পূর্বপাড়া গ্রামের মাঝখানে অবস্থিত হাবিবুর রহমানের বাড়ি । তার বাড়ির পিছনে বসানো হয়েছে পানির পাম্প। তার বাড়ির পিছনে রয়েছে ধানী মাঠ। পানির পাম্প বসিয়ে তার দিয়ে লাইন নিয়েছেন বাড়ির ভিতরে । অন্য কোন মানুষের পানি পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। ওই গ্রামের তুফাজ্জুল ইসলামসহ সেখানে উপস্থিত বেশকিছু ব্যক্তি জানান, জনবহুল জায়গায় সাবমারসিবুল পাম্পটি বসালে গ্রামের মানুষ পানি পেত। কিন্তু গ্রামের মানুষকে বঞ্চিত করে হাবিবুর নিজ বাড়িতে পাম্প বসিয়েছেন। এটি ক্ষমতাসীন দলের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজিম উদ্দিন(বাবু) হাবিবুরের কাছ থেকে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে এমন কাজ করেছেন বলে জানান তারা।
এ ছাড়া গ্রামবাসি আরো জানান, আড়াদিঘি যাবার রাস্তার পূর্ব দিকে রয়েছে পুকুর । পুকুরটি মরা পুকুরিয়া নামে পরিচিত। পুকুরের ধার ঘেঁষে বরেন্দ্র উন্নয়ন থেকে গাছ রোপন করেছিলেন আড়াদিঘি গ্রামের সমসেরের ছেলে বাদল। কিন্তু ধাপেধাপে ১২টির মত শিশু গাছ কাটেন হাবিবুর। গাছগুলো কেটে হাবিবুর খাটসহ যাবতীয় ঘরের আসবাবপত্র বানিয়েছেন । এ বিষয়ে হাবিবুর রহমান জানান, বাড়ির পিছনে বসানো হয়েছে পানির পাম্প এলজিইডি থেকে স্ট্যান্ড ও ট্যাংকি দিলে জায়গা মত বসানো হবে। মোটর বাড়ির ভিতরে কিভাবে ট্যাংকি বাইরে বসানো হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সময় হলে তা দেখতে পাবেন। তবে গাছ কাটার বিষয়টি অস্বীকার করেন তিনি।
এ ব্যাপারে ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রুস্তুম বলেন, পানির পাম্পটি দলীয়ভাবে বরাদ্দ পেয়েছে হাবিবুর। তাকে বরাদ্দ দিয়েছেন ইউপি আ’লীগ সভাপতি নাজিম উদ্দিন বাবু এর বেশি কিছু আমার জানা নেই। এ বিষয়ে নাজিম উদ্দিন বাবু বলেন, কেউ জায়গা না দেয়ার কারণে তার বাড়ির পিছনে বসানো হয়েছে। তবে আর্থিক সুবিধা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন তিনি। তানোর বিএমডিএর সহকারি প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ