Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

রেফারি ‘চোর’ ও ‘মিথ্যেবাদী’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

উন্মুক্ত যুগের রেকর্ড ২৩ বার জিতেছেন গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা। কিন্তু এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি কখনো হতে হয়নি সেরেনা উইলিয়ামসকে। ম্যাচ চলাকালে রেফারির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বেশ কয়েকবার ফেটে পড়েন মার্কিন তারকা। বিরতির পর কোর্টে পর্যন্ত ঢুকতে চাননি। এমনকি টুর্নামেন্ট রেফারির সঙ্গেও আঙুল তুলে বাক্য বিনিময় করেন তিনি।
বিতর্কের শুরু দ্বিতীয় গেমের দ্বিতীয় সেট থেকে। ডব্লিউটিএ ট্যুরে খেলা চলাকালে কোচের পরামর্শ নেয়ার অনুমতি থাকলেও গ্র্যান্ড স্ল্যামে তা নেই। সেই কাজটিই করেন সেরেনা। পরে সেরেনার কোচ প্যাট্রিক মোরাতোগলু পরামর্শ দেওয়ার কথা স্বীকারও করেন। অবশ্য একই কাজ করেন ওসাকার কোচ সাশা বাজিনও। তবে সেরেনার বিপক্ষে আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ আনেন রামোস। কিন্তু আমেরিকান তারকা এ অভিযোগ অস্বীকার করে আম্পায়ারকে বলেন, ‘আমি কখনো প্রতারণা করি না। দরকার পড়লে হেরে যাব।’
দ্বিতীয় সেটে সেরেনার পয়েন্ট কর্তন করা হয় ৩-২ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ার পর রাগে র‌্যাকেট ছুড়ে মারায়। এতে ক্ষেপে গিয়ে আবারো রামোসের সামনে গিয়ে ক্ষোব প্রকাশ করেন সেরেনা। আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামের স্বাগতিক দর্শকরাও সেরেনার পক্ষ নিয়ে এসময় রামোসকে দুয়ো দেয়।
বিরতির সময় ওসাকা যখন ৪-৩ ব্যবধানে এগিয়ে তখন এগিয়ে গিয়ে সেরেনা পর্তুগিজ রেফারিকে বলেন, ‘তুমি মিথ্যেবাদী। জীবনে বেঁচে থাকতে আর কখনো আমার ম্যাচে আম্পায়ারিং করতে পারবে না।’ এসময় আরো বলেন, ‘তুমি আমার কাছ থেকে পয়েন্ট চুরি করেছ। তুমি একজন চোর।’ এতে আবারো আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে তার পয়েন্ট কর্তন করেন রামোস।
প্রতিবাদী সেরেনা এক পর্যায়ে কোর্টে ঢুকতে আপত্তি জানান। শেষ পর্যন্ত কোর্টে ফিরলেও স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারেননি। ম্যাচ শেষে রামোসের বিপক্ষে পুরুষতান্ত্রিকতার অভিযোগ তুলে মার্কিন তারকা বলেন, ‘সে ছেলেদের কাছ থেকে কখনো ম্যাচ কেড়ে নিতে পারে না, কারণ ওরা তাকে ‘‘চোর’’ বলে।’ ম্যাচ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষিদের পাহারায় মাঠ ছাড়েন রামোস। পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানেও তিনি ছিলেন না।
সাবেক উইম্বলডনজয়ী প্যাট ক্যাশের মতে, ‘এমন উদ্ভট ম্যাচ ও উপস্থাপনা আমি কখনো দেখিনি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ