Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ম্যানেজার, নির্বাচককে রেখেই দুবাইয়ে বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

টানা তিন আসর পর এশিয়া কাপ আয়োজন হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের বাইরে। ২০১২, ২০১৪ এবং ২০১৬ সালে বাংলাদেশে বসেছিল এশিয়া কাপ। তিন আসর পর সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। শেষ তিন আসরে এশিয়া কাপে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ছিল ঈর্ষণীয়। ঘরের মাঠে দুবারই বাংলাদেশ খেলেছিল ফাইনাল। কিন্তু খুব কাছে গিয়েও শিরোপার স্বাদ পাওয়া হয়নি। এবার কি করবে বাংলাদেশ? অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানিয়েছেন, এশিয়া কাপ জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশরও। তবে আপাতত অতদূর ভাবছে না বাংলাদেশ। ম্যাচ বাই ম্যাচ চিন্তা করতে চান ওয়ানডে অধিনায়ক।
এশিয়া কাপে অংশ নিতে গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা ছেড়েছে বাংলাদেশ দল। এমিরেট এয়ারলাইন্সের বিমানে করে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছে মাশরাফিরা। তবে এদিন দলের সঙ্গে যাওয়া হয়নি সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও রুবেল হোসেনের। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরাসরি দুবাইয়ে যোগ দেবেন সাকিব। আর শেষ সময়ে এসে ভিসা জটিলতার কারণে দলের সঙ্গে যেতে পারেন নি তামিম ইকবাল ও রুবেল হোসেন। বিসিবি বলেছে দুই, একদিনের মধ্যেই ভিসা পেয়ে যাবেন তারা।
দলের সফরসঙ্গী হতে পারেনি প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু এবং ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনও। একদম শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপের ম্যানেজারের দায়িত্ব পাওয়া সুজন ও প্রধান নির্বাচক নান্নু দলের সাথে যেতে পারছেন না ভিসা জটিলতার কারনে। সুজনের অনুপস্থিতিতে দলের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজারের দায়িত্বে আছেন দলের ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়ন।
শুরুতে সুজনের আরব আমিরাতে যাওয়ার কথা চূড়ান্ত না হওয়ায় তার পেপারওয়ার্ক করা যায়নি সময়মতো। যার ফলে এখনো মেলেনি ভিসা। তবে নান্নুর সমস্যা ব্যক্তিগত, সেজন্যই নাকি বিলম্বিত হচ্ছে ভিসা পেতে। তারা এখনো জানেন না ঠিক কবে নাগাদ যোগ দেবেন দলের সাথে। তবে এশিয়া কাপ শুরুর আগেই তারা টুর্নামেন্টের ভেন্যুতে উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করছেন প্রধান নির্বাচক নান্নু, ‘এখনো বলতে পারছি না কবে যাবো আমরা। তবে আশা করছি দুই-এক দিনের মধ্যেই ভিসা সম্পর্কিত জটিলতা দূর হয়ে যাবে এবং টুর্নামেন্টের আগেই আমরা দলের সাথে যোগ দিতে পারবো।’
বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে এশিয়া কাপের। দুবাইয়ে দুই দল মুখোমুখি হবে ১৫ সেপ্টেম্বর। বাংলাদেশের গ্রুপের আরেক দল আফগানিস্তান। এছাড়া আরেক গ্রুপে পাকিস্তান ও ভারতসহ রয়েছে বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা হংকং। ছয় দল থেকে সেরা চারদল যাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। ডাবল লিগ পদ্ধতিতে চার দল প্রত্যেকের সঙ্গে ম্যাচ খেলবে। সেরা দুই দল যাবে ফাইনালে।
এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দল : মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ মিথুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি ও লিটন কুমার দাশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর